• সর্বশেষ আপডেট

    ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় খালেদা-তারেক জড়িত: প্রধানমন্ত্রী

     

    ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনার সঙ্গে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান জড়িত ছিল এতে কোনো সন্দেহ নেই বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

    এ সময় বাংলাদেশের মানুষ তাদের ছাড়বে না বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।


    সোমবার (২১ আগস্ট) ভয়াবহ গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

    বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এরআগে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। আলোচনা সভার শুরুতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বক্তব্য রাখেন।

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ২১ আগস্ট প্রকাশ্য দিবালোকে আইভি রহমানসহ আমাদের দলের নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনার বিচারের রায় হয়েছে। এই রায় দ্রুত কার্যকর করা উচিত। কিছু এখানে আছে তারা কারাগারে, কিন্তু মূল হোতা তো বাইরে। সে তো মুচলেকা দিয়ে বাইরে চলে গেছে। সাহস থাকলে আসে না কেন বাংলাদেশে? আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি সেই সুযোগ নিয়ে লম্বা লম্বা কথা বলে। হাজার হাজার কোটি টাকা চুরি করে নিয়ে চলে গেছে। এখন সেই টাকা খরচ করে।

    তিনি বলেন, সাহস থাকলে বাংলাদেশে আসুক, বাংলাদেশের মানুষ ওই খুনিকে ছাড়বে না। বাংলাদেশের মানুষ ওদেরকে ছাড়বে না। তারা বাংলাদেশের মানুষকে চেনে নাই।

    তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষের কাছ থেকে জাতির পিতাকে সরাতে চেষ্টা করেছিল, তার নামটা মুছে ফেলা হয়েছিল। কিন্তু তারা তা করতে পারেনি। আবার জাতির পিতার নাম ফিরে এসেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ফিরে এসেছ। কাজেই এই বাংলাদেশে খুনিদের রাজত্ব আর চলবে না। জিয়া পরিবার মানে হচ্ছে খুনি পরিবার।

    আওয়ামী লীগের সভাপতি বলেন, যারা এখনও স্প্লিন্টার নিয়ে যন্ত্রণায় কাতর তাদের বলব, আপনারা মানুষের কাছে যান, বলেন যে ওই খালেদা জিয়া, তারেক জিয়া কিভাবে আপনাদের জীবনটাকে ধ্বংস করেছে। কিভাবে দেশ লুটপাট করেছে, কিভাবে দেশের স্বাধীনতা চেতনা ধ্বংস করেছে। 
    প্রকাশিত সোমবার ২০ আগস্ট ২০২৩