Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ।


    মোঃইব্রাহিম,নোয়াখালীঃনোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নে এক কিশোরীকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় নির্যাতিতা কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত প্রবাসী যুবক শিপন (২২) পলাতক রয়েছে।বৃহস্পতিবার সকালে ওই কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত শিপন চরএলাহী ইউনিয়নের চরযাত্রা গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে।

    অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা ওই কিশোরী তার বাবার সঙ্গে কোম্পানীগঞ্জের চরএলাহীতে থাকতো। সে একজন মানসিক প্রতিবন্ধী। ঘটনার দিন গত ২০ জুলাই সোমবার বিকাল ৪টার দিকে চরযাত্রা গ্রামের স্থানীয় একটি চা দোকান থেকে নিজ বাড়িতে যাচ্ছিল মেয়েটি। কিছু পথ যাওয়ার পর প্রবাসী শিপন তার গতিরোধ করে এবং তাকে কৌশলে পার্শ্ববর্তী একটি মাছের প্রজেক্টে নিয়ে যায়। পরে প্রজেক্টের পেছনের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ২২ জুলাই বুধবার রাতে নির্যাতিতার বাবা বাদী হয়ে শিপনকে আসামি করে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেছেন।

    কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক 'দিগন্ত নিউজ বিডি' কে জানান, মানসিক প্রতিবন্ধী ওই কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিপন নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়েছে। ওই কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার ২৩ জুলাই, ২০২০

    Post Top Ad