• সর্বশেষ আপডেট

    বন্দুক থেকে গুলি বেরিয়ে লাগলো চা–দোকানির পায়ে, কনস্টেবল বরখাস্ত

     

    ঝালকাঠির রাজাপুরে পুলিশের এক কনস্টেবলের বন্দুক থেকে মিসফায়ারে মনির মাহমুদ (৪৫) নামে এক চা–দোকানি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। গত শনিবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে রাজাপুর উপজেলার তারাবুনিয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। তবে বিষয়টি জানাজানি হয় আজ বুধবার দুপুরে। 

    গুলিবিদ্ধ মনির মাহমুদ রাজাপুর উপজেলার রোলা গ্রামের প্রয়াত জয়নাল আবেদীনের ছেলে। তিনি বর্তমানে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল (শেবাচিম) কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

    স্থানীয়রা জানান, লেবুবুনিয়া বাজারে টহলের সময় অটোরিকশায় উঠতে গিয়ে হঠাৎ করে কনস্টেবল নুরুল ইসলামের বন্দুক থেকে একটি মিসফায়ার হয়। এ সময় ওই গুলিতে রাস্তার পাশের চা–দোকানি মনিরের পায়ে লাগে। তবে তাকে তাৎক্ষণিক পুলিশের পক্ষ থেকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মনির ভালো আছেন। আর আঘাতও গুরুতর নয়। 

    চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ মনির বলেন, ‘রাত সাড়ে ১২টার পর থানা–পুলিশ টহলে আসেন। তখন আমি দোকানে চা বানাচ্ছিলাম। হঠাৎ কনস্টেবল নূরুল ইসলামের হাতে থাকা বন্দুক থেকে গুলি বের হয়। গুলি আমার পায়ে লাগে। দোকানের চায়ের কেটলি দুমড়ে–মুচড়ে যায়। তারপর পুলিশের লোকেরাই আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তবে এখন দোকান বন্ধ থাকায় আমার পরিবার আর্থিক সংকটে পড়েছে।

    এ ব্যাপারে ঝালকাঠি পুলিশ সুপার (এসপি) আফরুজুল হক টুটুল জানান, এ ঘটনায় নুরুল ইসলাম নামে ওই কনস্টেবলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। চায়ের দোকানি মনিরের চিকিৎসাসহ সার্বিক খোঁজ–খবর রাখা হচ্ছে।

    প্রকাশিত বুধবার ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩