• সর্বশেষ আপডেট

    ভারতে ছেলেধরা সন্দেহে চার সাধুকে মারধর

      

    ভারতের মহারাষ্ট্রে ছেলেধরা সন্দেহে চার জন সাধুকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার রাজ্যের সাংলি জেলার লাভানা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার একটি ভিডিও ইতোমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে।

    ভিডিওতে দেখা গেছে, একটি মুদি দোকানের বাইরে লাঠি হাতে বেশ কয়েকজন স্থানীয় মানুষ ওই সাধুদের মারধর করছেন। পুলিশ জানিয়েছে, তারা এই বিষয়ে কোনও অভিযোগ পাননি।


    সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন সাংলির পুলিশ সুপার দীক্ষিত গেদাম। তিনি বলেন, ‘আমরা কোনও অভিযোগ পাইনি। তবে ভাইরাল ভিডিওগুলো খতিয়ে দেখে সত্যতা যাচাই করা হচ্ছে। প্রয়োজনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

    মহারাষ্ট্রের বিজেপি বিধায়ক রাম কদম এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, সরকার সাধুদের সঙ্গে এই ধরনের দুর্ব্যবহার সহ্য করবে না। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    এর আগে ২০২০ সালের ১৬ এপ্রিল মহারাষ্ট্রের পালঘর জেলার গাদচিনচালে গ্রামে দুই সাধু এবং তাদের গাড়িচালককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ওই এলাকায় গুজব ছড়ায়, অঙ্গ পাচারের উদ্দেশ্যে বাচ্চাদের চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে দুষ্কৃতীকারীরা। এই সময়ে ওই সাধুদের গাড়ি গ্রামে এসে উপস্থিত হলে তাদের ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়।

    ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে চার পুলিশ সদস্য এবং একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন। ওই ঘটনায় ‌মোট ১১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। সূত্র: আনন্দবাজার।
    প্রকাশিত বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad