• সর্বশেষ আপডেট

    সিইউজ ও আইনজীবী সমিতির বৈঠক সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় সৃষ্ট সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান

     

    নিজস্ব প্রতিবেদক  ঃ যমুনা টেলিভিশনের দুই সাংবাদিক আল আমিন সিকদার ও সৈয়দ আসাদুজ্জামান লিমনের উপর চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় হামলার ঘটনায় সাংবাদিক ও আইনজীবীদের মধ্যে সৃষ্ট সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবেনা বলে আশ্বস্থ করেন আইনজীবী নেতৃবৃন্দ।
    বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) বিকেলে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবু মোহাম্মদ হাশেম ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এএইচএম জিয়াউদ্দীনের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন-সিইউজে কার্যালয়ে উপস্থিত হন। এসময় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে উদ্ভুত বিষয়ে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা হয়।  
    আলোচনায় অংশ নিয়ে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবু মোহাম্মদ হাশেম বলেন, সাংবাদিক ও আইনজীবীরা একে অন্যের পরিপূরক। এই দুই পেশাজীবী সংগঠনের মধ্যে কখনো কোন বিরোধ ছিল না, এখনও নেই। আদালত ভবন এলাকায় সংঘটিত ঘটনা সম্পূর্ণ অনাকাঙ্ক্ষিত। এ ঘটনার জন্য আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি। সকল ভুলবুঝাবুঝি নিসরন হয়ে ভবিষ্যতেও আমাদের মধ্যে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক বজায় থাকবে- এ প্রত্যাশা রাখছি।
    চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি আলী আব্বাস বলেন, আইনজীবীদের সঙ্গে সাংবাদিকদের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। আগামীতে এ ধরনের কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা যাতে না ঘটে এজন্য সাংবাদিক ও আইনজীবীদের সতর্ক থাকতে হবে। 
    আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলী বলেন, কেউ যেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোন উস্কানিমূলক বিদ্বেষ না ছড়ায় এ বিষয়ে আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। 
    চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম বলেন, আদালত এলাকায় সাংবাদিক ও আইনজীবীদের মধ্যে ঘটে যাওয়া অপ্রত্যাশিত ঘটনায় সৃষ্ট সংকট নিরসনের এই উদ্যোগ আগামিতে দুই পেশার জন্য ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। 
    আইনজীবী ও সাংবাদিকদের মধ্যে সৃষ্ট সংকট শান্তিপূর্ণ ভাবে নিরসন হওয়ায় আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এএইচএম জিয়াউদ্দীন সকলকে ধন্যবাদ জানান। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে এজন্যে তিনি সকলকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান।

    বৈঠকে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) এর সভাপতি মোহাম্মদ আলী, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস, সাবেক সভাপতি কলিম সরওয়ার, সিইউজে সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহ-সভাপতি রতন কান্তি দেবাশীষ, সহ-সভাপতি অনিন্দ্য টিটো, যুগ্ম-সম্পাদক সবুর শুভ চট্টগ্রাম টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি নাসির উদ্দিন তোতা, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, নির্বাহী সদস্য আজহার মাহমুদ, চট্টগ্রাম ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রাজেশ চক্রবর্তী, টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি শাফিক আহমেদ সাজিব, সিইউজের টিভি ইউনিট প্রধান মাসুদুল হক, সিইউজে সদস্য সরওয়ার কামাল, আল আমিন সিকদার, আসাদুজ্জামান লিমন, যমুনা টিভির রিপোর্টার শহীদুল সুমন প্রমুখ।  
    আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দের মধ্যে সভাপতি এডভোকেট আবু মোহাম্মদ হাশেম, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জিয়াউদ্দিন চৌধুরী, সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শফিক উল্লাহ, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. এরশাদুর রহমান রিটো, সদস্য অ্যাডভোকেট শাহেদুল হক, অ্যাডভোকেট ইসহাক আহমেদ প্রমুখ  বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
    প্রকাশিত শুক্রবার ২৬ আগস্ট ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad