Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    কাজ করেছি বলেই আমাকে নির্বাচিত করা হয়েছে: কাজী সালাউদ্দিন


    টানা চতুর্থবারের মতো সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের (সাফ) সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন কাজী সালাউদ্দিন। মাস কয়েক আগে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তার সভাপতি পদে থাকাটা নিশ্চিত হয়েছিল। আজ (শনিবার) ঢাকায় সাফের বার্ষিক কংগ্রেসে তা অনুমোদনও দেওয়া হয়েছে। আগামী চার বছরের জন্য আবারও সভাপতি হয়ে কাজী সালাউদ্দিন জানানেল, চমক নয়, রিয়েলিটিতে বিশ্বাস তার।

    ঢাকার স্থানীয় হোটেলে সাফের দুই দেশ ভারত ও পাকিস্তানকে ছাড়া কংগ্রেস হয়েছে। কমিটি নিয়ে জটিলতার কারণে ভারত ও ভিসা না পাওয়ার কারণে পাকিস্তান অংশ নিতে পারেনি।

    টানা চতুর্থবার সভাপতি হয়ে কাজী সালাউদ্দিন সামনের দিকে ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন, ‘আমি যখন সাফের প্রেসিডেন্ট হই তখন মাত্র একটি টুর্নামেন্ট ছিল। এখন প্রতি বছর পাঁচ থেকে ছয়টা টুর্নামেন্ট হয়। এটাই বলে দেয় সাকসেস কতখানি। ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপটা এখন বাকি। এত চমকের দরকার নেই, আমার দরকার রিয়েলিটি। রিয়েলিটিতে ছয়টা হচ্ছে, আরেকটা যোগ হবে। এছাড়া আর কোনও স্পেস নেই অন্য কিছু যোগ করার। সবাইকে একটি পরিবার হয়ে কাজ করতে হবে।’


    এরপরই সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে তাদের পরিকল্পনার বিস্তারিত জানিয়েছেন এভাবে, ‘আমরা ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ ও সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ অদলবদল করতে চাই। যদি এক বছর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ হয় তবে পরের বছর ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ হবে। এটাই আমাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা।’

    সাফ সভাপতি হয়ে নিজের কাজের মূল্যায়ন করতে গিয়ে সালাউদ্দিন সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন, ‘আমি বলবো গত কয়েক বছর বেশ সাকসেসফুল ছিল। এক টুর্নামেন্ট থেকে সাত টুর্নামেন্ট। প্রতি বছর ছয়টি করে টুর্নামেন্ট, আমার মনে হয় এক বছরে এর চেয়ে বেশি করা সম্ভব নয়। আমি কাজ করেছি বলেই আমাকে নির্বাচিত করা হয়েছে।’

    বিশ্ব ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ান দেশগুলোর উন্নতি নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়েছে সালাউদ্দিনকে। ভারতের উন্নতির উদাহরণ দিয়ে বাফুফের বড় কর্তা বলেছেন, ‘আমাদের যে সাতটা দেশ আছে তারা বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্র দেশের কয়েকটি। আমাদের মধ্যে ফুটবলের দিক থেকে ধনী কেবল ভারত। ভারতে এখন বয়সভিত্তিক বিশ্বকাপ হচ্ছে। তারা অংশগ্রহণ করছে। একসঙ্গে উন্নতি করতে গেলে একটা একটা করে টেনে তুলতে হয়। একসঙ্গে তো  সাতটা দেশ উঠবে না। সেই দিক থেকে এটা ইতিবাচক।’


    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad