Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    কুমিল্লায় বিয়ের ৫ দিন পর আবাসিক হোটেল থেকে নব-বধূ নিপার মরদেহ উদ্ধার।


    এম এ বাশার, কুমিল্লাঃ- কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় বিয়ের ৫ দিন পর ঢাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে জেরিন নিপা (২৪) নামে এক নববধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাজধানীর উত্তর কমলাপুরের হোটেল সিটি প্যালেস ইন্টারন্যাশনাল নামে আবাসিক হোটেল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

    নিহত মেহনাজ জেরিন নিপা (২৪) কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বড়ধুশিয়া গ্রামের হুমায়ুন মিয়ার মেয়ে। তিনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের সমাজকল্যাণ বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী ছিলেন।
    নিহত নিপার বিয়ে হয় একই উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের বাসিন্দা ও পুলিশের বিশেষ শাখার "এসবি" কনস্টেবল জাহিদুল ইসলাম রুবেলের সঙ্গে।

    নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বছরের প্রথম দিন (১ জানুয়ারি শুক্রবার ) নিপার সঙ্গে রুবেলের বিয়ে হয়। গত রোববার গ্রামের বাড়ি থেকে স্বামীর সঙ্গে ঢাকায় আসেন নিপা।

    চাকরির কারণে স্বামী রুবেলের বাসস্থান অফিসের মেস হওয়ায় স্ত্রীকে নিয়ে ওঠেন রাজধানীর উত্তর কমলাপুরের হোটেল সিটি প্যালেস ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি আবাসিক হোটেলে। আর সেই হোটেল থেকে মঙ্গলবার বের করা হয় মেহনাজ জেরিন নিপার লাশ।

    নিহতের ভাই আহসানুল কবিরের অভিযোগ, স্বামী রুবেলই তাকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করেছে।
    পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ সময় ভেতর থেকে রুমের দরজা বন্ধ ছিল। এ ঘটনায় স্বামী জাহিদুল ইসলাম রুবেলের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মতিঝিল থানায় মামলা দায়ের করেছেন নিহতের ভাই আহসানুল কবির।

    হোটেল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত (৩ জানুয়ারি) স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ২ জন হোটেলের ওই রুমটি ভাড়া নেন। এরপর স্বামী অসুস্থতার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কথা বলে হোটেল থেকে চলে যান। এ সময় ওই তরুণী হোটেলে একাই ছিলেন। মঙ্গলবার সকালে কোনো সাড়াশব্দ না পাওয়ায় খবর পেয়ে পুলিশ এসে রুমের দরজা ভেঙে লাশ উদ্ধার করে।

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৭ জানুয়ারি, ২০২১

    Post Top Ad