Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    কালিয়াকৈরে বেতনের টাকার জন্যে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা! স্বামী পলাতক!

    মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, গাজীপুরঃ- গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় মোছঃ ঝরনা বেগম ওরফে ফুলী (৩০) নামে এক নারী শ্রমিককে গলা কেটে খুন করেছে তার স্বামী জাহাঙ্গীর মিয়া। বুধবার (২৯ জুলাই ২০২০) পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে।

    মৌচাক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মনিরুজ্জামান জানান, কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক মোল্লাবাড়ি এলাকার সাইদুর রহমান মোল্লার বাড়িতে স্বামীকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন।

    স্থানীয় কোকোলা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড কারখানায় শ্রমিক ফুলী। স্বামী বেকার থাকায় প্রায়ই স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া বিবাদ হতো।

    মঙ্গলবার কারখানা থেকে বেতনের টাকা নিয়ে ফুলী বাসায় ফিরে। এ সময় জাহাঙ্গীর ফুলীর কাছে টাকা চাইলে সে দিতে অস্বীকার করে। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। রাতে খাবার খেয়ে দুইজনে ঘুমিয়ে পড়েন।

    বুধবার সকালে কারখানায় যাওয়ার জন্য ফুলীর সাড়া শব্দ না পেয়ে তাকে ডাকতে যায় প্রতিবেশী এক নারী। এ সময় বাইরে থেকে আটকানো দরজার ছিটকিনি খুলে ঘরে ঢুকে তিনি খাটের ওপর ফুলীর গলাকাটা লাশ দেখতে পান।

    খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। খুনের ঘটনায় ব্যবহার করা চাকু লাশের পাশ থেকে জব্দ করা হয়। ঘটনার পর থেকে খুনী পলাতক।

    কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ঘুমন্ত অবস্থায় চাকু দিয়ে গলা কেটে স্ত্রীকে হত্যার করে তার বেতনের টাকা নিয়ে পালিয়েছে স্বামী।

    নিহতের ভাই রুবেলসহ স্বজনরা জানান, প্রায় ৭-৮ বছর আগে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার চাঁনপুর গ্রামের মৃত আব্দুল খালেকের সন্তান জাহাঙ্গীর মিয়া। তার সঙ্গে একই গ্রামের জয়নাল আবেদীনের কন্যা ফুলীর বিয়ে হয়। এটি ফুলীর দ্বিতীয় বিয়ে। তার প্রথম সংসারে দুই সন্তান এবং দ্বিতীয় সংসারে ৫ বছরের একটি সন্তান রয়েছে। তিন সন্তানই ফুলীর মায়ের সঙ্গে গ্রামের বাড়ি থাকে।

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার ৩০, জুলাই ২০২০

    Post Top Ad

    সজীব হোমিও প্যাথিক হল