Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    নোয়াখালীতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযানে ২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা।

    মোঃ ইব্রাহিম, নোয়াখালীঃ- নোয়াখালী বেগমগঞ্জ উপজেলার মিয়ার পোল এলাকায় কেরানী বাড়ি দরজা এলাকায় নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান,গ্যাস সিলিন্ডারের ডিলার,মিষ্টির দোকান,মশলার দোকান, বেকারি তদারকি করা হয়।তদারকিকালে মোড়কজাত বিধি অমান্য করায়,ওজনে কারচুপি অর্থাৎ ১ কেজির দধি মাপার ফলে ৮০০ গ্রাম পাওয়া যায় ফলে মিয়ার পোলের সামসুল হক দধি স্টোরকে ৩৭ ও ৪৬ ধারায় ২০,০০০ টাকা অর্থদণ্ড আরোপ করা হয় এবং গ্যাস সিলিন্ডারে গ্যাস ওজনে কম থাকা কেরানী বাড়ি এলাকার জিয়ার ব্রাদার্সকে ৪,০০০ টাকাসহ ২ টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ২৪,০০০ টাকা প্রশাসনিক এখতিয়ারে অর্থদণ্ড আরোপ ও আদায় করা হয় এবং টিসিবির ট্রাক সেল পরিদর্শন করা হয়।

    এই ব্যবসায়ীগণকে মূল্য তালিকা প্রদর্শন, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বিক্রয় না করা, ক্রয় ও বিক্রয় ভাউচার সংরক্ষণ, অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয় না করা, খাদ্যদ্রব্য স্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি ও সংরক্ষণ, নিষিদ্ধ রং ও রাসায়নিক ব্যবহার না করতে এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ক্রয় বিক্রয়ের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়। তদারকিমূলক অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক ভ্রাম্যমান আদালত ।অভিযানে বিভিন্ন অপরাধের দায়ে দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়।১৯ জুলাই রবিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: কাউসার মিয়ার নেতৃত্বে, ও জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর শওকত হোসেনে,বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের একটি টিমের উপস্থিতিতে বেগমগঞ্জ উপজেলায় এলাকায় মুদি,গ্যাস সিলিন্ডারের ডিলার,মিষ্টির দোকান,মশলার দোকান, বেকারি দোকানসমূহে এ অভিযান পরিচালনা করে।

    অভিযান পরিচালনাকালে বাজারে উপস্থিত জনসাধারণকে জাতীয় ভোক্তা অধিকারের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক নির্দেশনা প্রদান করা হয়।একই সাথে বাজারের ব্যবসায়ীদের দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে ভোক্তা অধিকার বিষয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ এবং দৃশ্যমান স্থানে পণ্যের মূল্য তালিকা প্রদর্শন ও পণ্য দ্রব্যর মূল্য প্রতিদিন হালনাগাদ করার বিষয়ে নির্দেশ প্রদান করা হয়।

    এ ব্যাপারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: কাউসার মিয়া বলেন,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলায় এলাকায় মুদি,,গ্যাস সিলিন্ডারের ডিলার,মিষ্টির দোকান,মশলার দোকান, বেকারি দোকানসমুহে অভিযান পরিচালনা করা হয়। মিয়ার পোলের সামসুল হক দধি স্টোরকে ৩৭ ও ৪৬ ধারায় ২০,০০০ টাকা অর্থদণ্ড আরোপ করা হয় এবং গ্যাস সিলিন্ডারে গ্যাস ওজনে কম থাকা কেরানী বাড়ি এলাকার জিয়ার ব্রাদার্সকে ৪,০০০ টাকাসহ ২ টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ২৪,০০০ টাকা প্রশাসনিক এখতিয়ারে অর্থদণ্ড আরোপ ও আদায় করা হয়।মূল্য তালিকা প্রদর্শন করে ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রয় ও মেয়াদ উত্তীর্ণ পন্য বিক্রয় না করার জন্য ব্যবসায়ীগণকে উদ্বুদ্ধ করা হয় ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রয়-বিক্রয় করার বিষয়ে পরামর্শ প্রদান করা হয়।তিনি আরোও বলেন, জনস্বার্থে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালী জেলা কার্যালয়ের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

    প্রকাশিত: রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০

    Post Top Ad

    সজীব হোমিও প্যাথিক হল