Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    রাজারহাটে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুরের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির সত্যতা পাওয়ায় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ।

    মাসুদ রানা, রাজারহাট-কুড়িগ্রামঃ- কুড়িগ্রামের রাজারহাটের ঐতিহ্যবাহি নাজিমখাঁন স্কুল এ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অযোগ্যতা,অনিয়ম.অর্থ আত্মসাৎত ও দুর্নীতির অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাকে অপসারন সহ তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেছেন দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

    জানা গেছে,উপজেলার নাজিমখাঁন স্কুল এ্যান্ড কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান বিজু ২০১২ইং সনে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এরপর থেকে পূর্ণাঙ্গ অধ্যক্ষ নিয়োগে তালবাহনা করে আসছিলেন। এরই মধ্যে তার বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা তার অযোগ্যতা ও দূর্নীতির অভিযোগ তুলে একাধিকবার কাশ বর্জন,রাস্তা অবরোধ,বিক্ষোভ প্রতিবাদ সভা করে।

    এছাড়া শিক্ষার্থী অভিভাবকদের আনীত অভিযোগের প্রেক্ষিতে কুড়িগ্রাম জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পৃথক তদন্ত প্রতিবেদনে থেকে উক্ত ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের সত্যতা মিলে। এরই প্রেক্ষিতে দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ গত ১৩জুলাই ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান বিজুর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে বিধি অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ প্রদান করা হয়।

    এবিষয়ে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান বিজু দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক তার বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ সংবলিত পত্র ইস্যুর সত্যতা স্বীকার করে জানান,বোর্ড থেকে যেহেতু নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে এবিষয়ে আমার কিছু বলার নেই।

    কুড়িগ্রাম জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শামসুল আলম নাজিমখাঁন স্কুল এ্যান্ড কলেজের অভিভাবকদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত কালীন ঘটনার সত্যতা পেয়ে প্রতিবেদন দখিল করেছিলেন বলে জানান।

    প্রকাশিত: বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad