Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    রাজারহাটে নির্বাহীম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে পুড়িয়ে দেয়া হলো তিনটিড্রেজার মেশিন


    মাসুদ রানা, রাজারহাট-কুড়িগ্রামঃ- রাজারহাটে নির্বাহীম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে পুড়িয়ে দেয়া হলো তিনটিড্রেজার মেশিন। অবৈধভাবে বালুউত্তোলনের ঘটনায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহীম্যাজিষ্ট্রেট মোছাঃ আকলিমা বেগমের নেতৃত্বে ৩টি ড্রেজারমেশিন ও সরঞ্জামাদী ধ্বংস করা হয়েছে। জানা গেছে, কিছু অসাধু ড্রেজার ব্যবসায়ী সরকারী বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে উপজেলার চাকিরপশার ইউনিয়নের চাকির পশার পাঠকগ্রামে একটি এবং বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের সুকদেব গ্রামে দুটিড্রেজার মেশিন দিয়ে অবাধে বালু উত্তোলন শুরু করে।

    বিষয়টি জানতেপেরে রবিবার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহীম্যাজিষ্ট্রেট মোছাঃ আকলিমা বেগমের নেতৃত্বে রাজারহাট থানাপুলিশের সার্বিক সহযোগীতায় ৩টি ড্রেজার মেশিন ও সরঞ্জামাদীধ্বংস করা হয়। এসময় ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতি টের পেয়ে ড্রেজারব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়।এবিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহীম্যাজিষ্ট্রেট মোছাঃ আকলিমা বেগম অভিযানের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মেশিনের মালিক বা কাউকে উপস্থিত না পাওয়ায় তিনটি মেশিন পুড়িয়ে ও সরঞ্জামাদি ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে।

    উল্লেখ্য প্রায় ৪মাস পূর্বে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহীঅফিসার মোহাঃ যোবায়ের হোসেন যত্রতত্র ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনের কারনে ৮/১০টি ড্রেজার মেশিন ও সরঞ্জামাদিপুড়িয়ে দেন। এরপর থেকে উপজেলার ৭ইউনিয়নের ২৫টি ড্রেজার মেশিনবন্ধ রয়েছে। এছাড়া বৈধ পন্থায় বালু উত্তোলনের লক্ষ্যে তিনি উপজেলার৯টি স্থানে বালু মহাল স্থাপনের অনুমতির লক্ষ্যে একটি প্রস্তাবনা জেলাপ্রশাসকের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে প্রেরন করেন। এরপর বিচ্ছিন্নভাবে বিভিন্ন স্থানে একাধিকবার ড্রেজার মেশিন চালু হলেও অভিযান পরিচালনা করে তা ধ্বংস করা হয়।

    প্রকাশিত: রবিবার, ০৭ জুন, ২০২০

    Post Top Ad