Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    নোয়াখালী সেনবাগে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক।



    মোঃইব্রাহিম ,নোয়াখালীঃ নোয়াখালীর সেনবাগে যৌতুকের দাবীতে আরজু আক্তার (১৮) নামের এক গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে স্বামী আনিসুর রহমান প্রকাশ বাবুর (২৪) বিরুদ্ধে। আরজুর পিতা ওবায়দুল হকের অভিযোগ দাবীকৃত যৌতুকের ৩লাখ টাকা না পেয়ে মেয়ের জামাই বাবু তার মেয়ে আরজুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার চালায়। ওই ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিদাগত রাতে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড মহিদীপুর গ্রামের হোসেন আলী সারেং বাড়িতে।খবর পেয়ে সেনবাগ থানা এসআই মোঃ তানভির বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার সময় ওই গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। এবং জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য স্বামী আনিসুর রহমান প্রকাশ বাবুকে থানায় নিয়ে আসে।মেয়ের পিতা ওবায়দুল হক জানায়, বিগত ৫ মাস আগে প্রেমের সম্পর্কে তাদের দুই জনের বিবাহ হয়। বিবাহের কিছু দিন পর বাবু অন্য নারীর সঙ্গে আবারো পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝড়গা হতো। এরেই মধ্যে মেয়ের জামাই আনিসুর রহমান বাবুু বিদেশ যাবে বলে তার নিকট ৩লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে আসছিলো। তিনি গরিব মানুষ এত টাকা দিতে পারবেনা বলে জানালে সে ক্ষিপ্ত হয়। তিনি আরো জানান, ৬ রমজানের তার মেয়ে পিতার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়িতে আসার সময় মেয়ে ও মেয়ের জামাইয়ের ঈদ খরছের জন্য ১৩ হাজার দেন। ঘটনার রাতে বাবু অনেক রাত করে বাড়িতে ফিরলে এইনিয়ে দুই জনের মধ্যে কথা কাটাকাটির পর মেয়র জামাই বাবু তার মেয়েকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রেখে আত্বহত্যা করেছে বলে প্রচার চালায়।

    এব্যাপারে সেনবাগ থানার এসআই মোঃ তানভির জানান,খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে পৌছে মাটিতে শোয়ানো অবস্থা থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়ালীর জেনারেল হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেন। এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad