Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    গোপালগঞ্জ জেলা লকডাউন বাড়ছে আতঙ্ক, পাচঁটি এলাকায় প্রবেশ ও বাহির বন্ধ।


    প্রমথ রঞ্জন সরকার, গোপালগঞ্জঃ করোনাভাইরাসের প্রভাবে গোপালগঞ্জের মানুষের মধ্যে ক্রমশই বেড়ে চলেছে আতঙ্ক। করোনাভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে সব উপজেলারপৌরসভাসহ ও ইউনিয়নের গ্রামের প্রবেশ ও বাহিরের সব পথ বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। জেলার সকল উপজেলাকে ‘কন্টেইনমেন্ট’ ঘোষণা করা হয়েছে।

    এদিকে স্থানীয় প্রশাসনের অনির্দিষ্টকালের জন্য জরুরী প্রয়োজন ব্যতিত সব ধরনের গন পরিবহন চলাচল, হাট-বাজার, দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, পুলিশ কর্মকর্তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে একাধিক বৈঠক করছেন। অবষেশে গোপালগঞ্জ জেলাকে লকডাউন ঘোষনা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক ।

    মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় জেলা প্রশাসন এ সিদ্ধান্ত নেন (যার স্মারক নাম্বার সিএস/গোপা/২০২০/২০২০)। রাত ১০ টায় এই লকডাউনের কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা । 

    জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা আরো বলেন, করোনা আক্রান্তের বিষয়ে দেশের চলমান পরিস্থিতি উপর ভিত্তি করে গোপালগঞ্জ জেলাকে লকডাউনের ঘোষনা করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ আদেশ কার্যকর থাকবে।

    মঙ্গলবার রাত ১০ টা থেকে প্রশাসনের কঠোর আরোপ থাকায় গোপালগঞ্জে খাদ্য ও ওষুধ ছাড়া অন্যান্য দোকানপাট বন্ধ থাকবে। 

    জেলার সবকয়টি উপজেলাটির আভ্যন্তরীণ সব কয়েটি সড়ক পথে গণপরিবহন বন্ধ থাকবে । সড়কে বের না হয়ে জনগনকে লকডাউন মেনে চলতে অনুরোধও করছে প্রশাসন।

    গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন নিয়াজ মোহাম্মাদ বলেন, জেলার টুঙ্গিপাড়া প্রথম দু’টি গ্রামে ৩ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়ায়। এরপর একদিনে (১৩ এপ্রিল) এক দিনে ৬ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়ায় জেলায় সর্বস্তরের জনগনের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। তাই অতিরিক্ত সর্তকতায় এই লকডাউনের ঘোষনা দেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসককে অনুরোধ জানাই। আমরা আজ পর্যন্ত জেলা থেকে ১৬৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে রোগতত্ত¡, রোগনিয়ন্ত্রন ও গবেষনা প্রতিষ্ঠান ( আইইডিসিআর) এ পাঠানো হয়েছিলো এর মধ্যে ৯ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে।

    এখন পর্যন্ত যাদের শরীরে করোনা সনাক্ত হয়েছে এদের হিস্ট্রি থেকে আমারা জানতে পেরেছি এদের পুলিশ সদস্য বাদে বাকি ৬ জন জেলার বাহিরে থেকে এসেছে। পাচঁটি উপজেলা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলা কমিটির বা জেলা প্রশাসন বারাবর লকডাউনের জন্য সুপারিশ করলে জেলা প্রশাসক জেলাকে লকডাউনের ঘোষনা করে।


    প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২০

    Post Top Ad