Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    করোনাঃতহবিল গঠনে ডাবল সেঞ্চুরির ব্যাট নিলামে তুলছেন মুশফিক


    প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে থমকে গেছে পুরো পৃথিবী, মহাবিপদেই পড়েছে অসহায়-দুস্থরা। সমাজের বিত্তশালী অনেকেই বিভিন্নভাবে তাদের সহায়তায় সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন। আর্থিকভাবে বা বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সামগ্রী দিয়ে। ইতোমধ্যে ব্যক্তিগতভাবে সহায়তাও করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। আবারো অসহায়-দুস্থদের সহায়তায় এগিয়ে এলেন মুশফিক। তবে মুশফিকের এবারের এগিয়ে আসাটা ভিন্ন পন্থায়। আর সেটি হলো, ২০১৩ সালে শ্রীলংকার বিপক্ষে ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল-সেঞ্চুরি করা ব্যাটটি নিলামে তুলবেন টাইগার উইকেটকিপার মুশফিক।

    নিলাম থেকে প্রাপ্তঅর্থ পুরোটাই করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ব্যয় করা হবে। দাতব্য কাজের জন্য ক্রিকেটের সরঞ্জাম নিলামে তোলা বাংলাদেশে খুবই বিরল।

    টেস্ট ক্রিকেটে মুশফিকুর রহিম প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০১৩ সালে গল টেস্টে। নিলাম থেকে পুরো অর্থ দরিদ্র ও অসহায়দের সহায়তায় ব্যয় করা হবে।

    একজন ক্রিকেটার জানান, মুশফিকুরের মত অনেক খেলোয়াড়রা তাদের স্মরনীয় সরঞ্জামাদি ও ব্যাট নিলামে তুলছেন ।


    অসহায়-দুস্থদের সাহায্যর্থে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ী খেলোয়াড় জশ বাটলার ইতোমধ্যে তার স্মরনীয় একটি ব্যাট নিলামে তুলেছেন। যে ব্যাটটি দিয়ে গত বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছিলেন বাটলার। এই প্রাণঘাতি ভাইরাসের বিপক্ষে লড়াইয়ের জন্য ক্রিকেটাররা নিজ নিজ দেশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন।

    মুশফিকুর রহিম ঠিক ২০০ ইনিংসের যে এসএস ব্যাটটি ব্যবহার করেছিলেন (৩২১ বলে ২২ টি চার ও একটি ছক্কায়) সেটিই নিলামে তুলতে চলেছেন। এরপরে মুশফিকুর আরও দুটি ডাবল-সেঞ্চুরি পেয়েছেন।

    ঐতিহাসিক ব্যাটটি অনলাইন নিলামে তোলার ইঙ্গিত দিয়ে মুশফিক বলেন, “আমার প্রথম ২০০ রান করা ব্যাটটি নিলামে তুলছি। আমি এটি ডিজিটালভাবে নিলাম করার কথা ভাবছি। আমি প্রত্যেককে অনুরোধ করব যারা পারেন নিলামে আসুন এবং ব্যাটের জন্য বেশি করে দাম তুলুন।”

    এই ব্যাটটি তার কাছে বিশেষ হওয়ার বিষয়ে বলেন, “ব্যাটটি স্পষ্টতই আমার কাছে বিশেষ কিছু। কারণ দেশের পক্ষে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিয়ান হিসেবে আমার নাম ইতিহাসের সাথে যুক্ত হয়েছে।”


    প্রকাশিত: সোমবার, ২০ এপ্রিল, ২০২০

    Post Top Ad