Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ধান কাটতে কোটালীপাড়া ইউএনওর ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

                          
    প্রমথ রঞ্জন সরকার,গোপালগঞ্জ:: কৃষকের বোরো ধান ঘরে তোলার কাজে সহযোগিতা করতে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ‘চাষির হাসি সেল’ নামে একটি ফেসবুক পেজ খুলেছেন।

    সোমবার (২৭ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে এ সেলের উদ্বোধন করেন তিনি।

    এ লক্ষ্যে কোটালীপাড়া উপজেলার কর্মক্ষম বেকার, বিভিন্ন পেশাজীবী কর্মহীন ব্যক্তি, পরিবহন শ্রমিক, বিভিন্ন দোকানে নিয়োজিত শ্রমিক, নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্য, ছাত্রসমাজ, যুবসমাজসহ সর্বসাধারণ যারা নিজ প্রয়োজনে অথবা দায়িত্ববোধের তাড়নায় শ্রমিক হিসেবে বা স্বেচ্ছাশ্রমে ধান সংগ্রহ করে কৃষকদের সহযোগিতা করতে চায় তাদের কাছ থেকে রেজিস্ট্রেশন আহবান করা হয়েছে। প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদে এবং উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয়ে আগ্রহী ব্যক্তিকে রেজিস্ট্রেশন করতে অনুরোধ করা হয়েছে। এছাড়া ‘চাষির হাসি সেল’ ফেসবুক পেজ থেকে রেজিস্ট্রেশন ফরম সংগ্রহ করা যাবে।


    কোটালীপাড়া উপজেলার ইউএনও এস এম মাহফুজুর রহমান বলেছেন, উপজেলার ২৪ হাজার ৫২০ হেক্টর জমিতে উৎপাদিত বোরো ধান সংগ্রহ নিয়ে চাষিরা দুশ্চিন্তাগ্রস্ত এবং দিকভ্রান্ত। প্রতিবছর দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার শ্রমিক এই এলাকায় ধান সংগ্রহের কাজে আসতো। কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে দূর-দূরান্ত থেকে শ্রমিকদের আসার প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন বেশ দুরুহ। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ইতোমধ্যে বিভিন্ন দায়িত্বশীল ব্যক্তি ও সংগঠন স্বেচ্ছাশ্রমে কৃষকদের সঙ্গে কাস্তে হাতে এগিয়ে এসেছেন যা যথেষ্ট প্রশংসনীয় ও আশাব্যঞ্জক। কিন্তু প্রয়োজনের তুলনায় এ সংখ্যা অপ্রতুল হওয়ায় এখনো অনেক চাষি ধান সংগ্রহ নিয়ে চরম অনিশ্চয়তায় রয়েছে।

    অপরদিকে স্থানীয় পর্যায়ে অন্যান্য পেশায় নিয়োজিত শ্রমজীবী মানুষ এবং ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত কর্মক্ষম যুবসমাজের একটি বড় অংশ বর্তমানে বেকার অবস্থায় রয়েছে। তাদের অনেকেরই বর্তমানে কোনো আয়-রোজগার নেই, জমানো টাকাও শেষ হবার পথে। পরিবার পরিজনের ভবিষ্যৎ প্রয়োজন মিটানোর উপায় ভেবে তারা দিশেহারা। এ কর্মহীনদের মধ্যে কারো কারো হয়ত আর্থিক দৈনতা নেই তবে জাতির এ দুঃসময়ে মানুষের জন্য কিছু করার তীব্র বাসনা রয়েছে। তাই সব শ্রেণী পেশার মানুষের কথা চিন্তা করে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।


    তিনি আরো জানান, কোটালীপাড়ার উদ্যোগ-চাষির হাসি সেল। এ সেল কর্মক্ষম বেকারদের রোজগারের ব্যবস্থা করতে দায়িত্বশীল স্বেচ্ছাসেবীদের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সুযোগ করতে এবং কৃষকদের ধান ঘরে তুলে তার মুখে হাসি ফোটাতে কাজ করবে।

    অপরদিকে যে সব চাষি নিজ জমির ধান সংগ্রহ নিয়ে অনিশ্চয়তায় রয়েছেন তিনি দিকভ্রান্ত না হয়ে চাষির হাসি সেল-তার প্রয়োজনীয়তার কথা জানাতে পারবেন। চাষির হাসি সেল মূলত এই দুই পক্ষের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করে উভয়পক্ষের কল্যাণ নিশ্চিতকরণের চেষ্টা করবে।


    ইউএনও আরো জানান, সব সদস্যবৃন্দ জাতির এ দুঃসময়ে কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়ে দেশীয় অর্থনীতি সমৃদ্ধশালী রাখতে অবদান রাখবে সে সব সদস্যবৃন্দ ও তাদের পরিবারের যেকোন চাহিদা বা প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি সরকারিভাবে সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হবে।

    কোটালীপাড়ার বোরো চাষিদের নিচের মোবাইল নম্বর বা ফেসবুক পেজ অথবা সরাসরি যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

    চাষির হাসি সেল ০১৭৩৪ ৭০৫০৯৯, ০১৭৪৫ ৩৮৭১৩৫, ০১৯১৮ ৬৮৩২৬৫। এছাড়া ফেসবুক পেজ- চাষির হাসি সেল

    অথবা সরাসরি রুম- ৩১২, উপজেলা পরিষদ ভবন, কোটালীপাড়া, গোপালগঞ্জ।


    প্রকাশিত: সোমবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২০

    Post Top Ad