• সর্বশেষ আপডেট

    আকবরশাহ্ থানার অভিযানে চুরি হওয়া সিএনজি অটোরিকশা উদ্ধার, গ্রেফতার -২

     

    দিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ নগরীর  আকবরশাহ্ থানাধীন শহীদ লেইন সংলগ্ন লাল দোকানের সামনে রাস্তার উপর সিএনজি অটোরিকশা নং-চট্ট মেট্রো -থ-১২-৮৩৯৭ রেখে ড্রাইভার সৈয়দ হোসেন দুপুরের খাবার খেতে পার্শ্ববর্তী শহীদ লেইনের বাসায় যায়। প্রায় ১ঘন্টা পর ফিরে এসে সিএনজিটি না পেয়ে তিনি সিএনজি মালিক নাজমুল হাসান কে ঘটনাটি জানালে  সিএনজির মালিক

     আকবরশাহ থানায় এই ঘটনায় অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে  মামলা দায়ের করেন আকবরশাহ থানার মামলা নং-১৩, তারিখ-১৪  ধারা-৩৭৯ পেনাল কোড রুজু হয়। এর পরপরই অভিজানে নামে  আকবরশাহ্ থানা পুলিশের একটি টিম বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ টানা ১০ ঘন্টা অভিযান পরিচালনা করে আজ ১৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দিন গত রাত ০২.টার দিকে চট্টগ্রাম জেলার রাউজান থানাধীন রমজান আলীর হাট, চৌরাস্তা মোড় থেকে সিএনজি অটোরিকশা চুরির ঘটনায় জড়িত আসামী দের আটক করে।

     আটক ব্যক্তিরা হল নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ থানার আব্দুল খালেক মোঃ রুবেল (৩০), ও কুমিল্লা জেলার  মনোহরগঞ্জ-থানা মৃত ওয়াহেদ আলী ছেলে মোঃ রমজান আলী (৩৫) তারা   বর্তমানে-  এক জন বউ বাজার শাপলা কলোনী অপরজন খাজা রোডস্থ বাদামতল ইদ্রিসের ভাড়া ঘরে বসবাস করেন।

    এসময়  গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের  হেফাজত থেকে চোরাইকৃত ১৮ লক্ষ টাকা মূল্যের সিএনজি অটোরিক্সা ও ৪টি 'মাষ্টার চাবি' উদ্ধার করা হয়।


    এ বিষয়ে জানতে চাইলে আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওলি উদ্দিন আকবর বলেন,   গ্রেফতারকৃত আসামীরা খুবই চতুর ও দুধর্ষ প্রকৃতির চোর। তারা দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগরীতে সিএনজি অটোরিকশা চুরির সাথে জড়িত। 

    ওসি বলেন, তাদের নিকট থেকে উদ্ধারকৃত 'মাস্টার চাবি' দিয়ে যে কোন সিএনজি অটোরিকশা স্টার্ট দেয়া যায়। তাদের প্রত্যেকের নামে চট্টগ্রাম জেলা ও নগরীর বিভিন্ন থানায় ৪টি করে মামলা রয়েছে। 

    আকবরশাহ্ থানায় রুজুকৃত মামলায় অদ্য তাদেরকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

    প্রকাশিত বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad