• সর্বশেষ আপডেট

    অফিসে ‘মামা-চাচা-খালু-ভাই’ না ডাকার নির্দেশ

     


    রাজবাড়ী সদর উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তার অফিসে সেবাগ্রহীতাদের ‘মামা, চাচা, খালু বা ভাই’ না ডাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তার অফিসের দরজা ও কক্ষে সাদা কাগজে কম্পিউটারে টাইপ করা দুটি কাগজে এই নির্দেশ চোখে পড়ে।

    এর মধ্যে প্রথম নির্দেশনায় লেখা- ‘(প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা) অনুমতি নিয়ে ভিতরে প্রবেশ করুন। আপনার পরিচয় দিন, সঠিক সেবাটি গ্রহণ করুন, ধন্যবাদ।’

    দ্বিতীয় নির্দেশনায় লেখা- ‘কর্মকর্তাদের সহিত অফিসিয়াল ভাষা ব্যবহার করুন (মামা, চাচা, খালু, ভাই, ব্রাদার কিংবা ছোট ভাই, বড় ভাই) ইত্যাদি শব্দ অফিসে ব্যবহার পরিহার করুন।’

    এ ঘটনায় সৃষ্টি হয়েছে আলোচনা-সমালোচনার। সেবাগ্রহীতাদের কয়েকজন বলেন, ‘একটি সরকারি অফিসে এ ধরনের কাগজ টাঙানো কেন? তারা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। সেবা দিতে চাকরি করেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।’

    রাজবাড়ী জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি ও এটিএন বাংলার জেলা প্রতিনিধি লিটন চক্রবর্তী বলেন, ‘ওই দুটি কাগজ আমার চোখে পড়লে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করি। অনেকে নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন। আসলে একজন সরকারি কর্মকর্তা কি এটা লিখতে পারেন?’

    এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজবাড়ী সদর উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোস্তফা আল রাজীব বলেন, ‘আসলে কাগজটি আমার নজরে আসেনি। আর ওখানে অফিসিয়াল ভাষা ব্যবহার করার কথা বলা হয়েছে। অনেকে এসে ভাই বলে। আমরা তো তাকে কাজ করে দেই। আমি বেশি দিন হয়নি এখানে এসেছি।’

    এ সময় দুটি কাগজে নির্দেশনা দেওয়ার বিষয়টি বললে তিনি বলেন, ‘এটা ঠিক হয়নি।’ তাৎক্ষণিকভাবে ওই নির্দেশনা সরিয়ে নিতে অফিসের স্টাফদের নির্দেশ দেন।

    প্রকাশিত রবিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad