• সর্বশেষ আপডেট

    হাইড্রোজেন পার অক্সাইড পরিবহনে সিঙ্গাপুরের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

     

    সীতাকুণ্ডের বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের পর সিঙ্গাপুর পোর্ট হাইড্রোজেন পার অক্সাইড পরিবহনে স্লট স্বল্পতার কারণ দেখিয়ে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে।  

    বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট)  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিএম ডিপোর নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন মইনুল আহসান।

     
    তিনি বলেন, আল রাজী কেমিক্যাল কমপ্লেক্স দেশের অন্যতম শীর্ষ হাইড্রোজেন পার অক্সাইড উৎপাদনকারী ও রফতানিকারক। মধ্যপ্রাচ্য ও দূরপ্রাচ্যে এ পণ্যটি আমরা রফতানি করি। গত ৪ জুন বিএম কনটেইনার ডিপোতে অনাকাঙ্ক্ষিত অগ্নিদুর্ঘটনার পর পিএসএ সিঙ্গাপুর হাইড্রোজেন পার অক্সাইড ভর্তি কনটেইনার গ্রহণ স্থগিত করে একটি চিঠি ইস্যু করে। গত ৯ জুন ইস্যু করা চিঠির ভিত্তিতে সব কনটেইনার লাইনার বাংলাদেশ থেকে পণ্যটি পরিবহনে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে। যার ফলে রফতানি ব্যাহত হয়েছে।

    তিনি জানান, বিষয়টি নিয়ে স্মার্ট গ্রুপ ও আল রাজী কেমিক্যাল কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে সিঙ্গাপুর মেরিটাইম অথরিটির সঙ্গে একাধিকবার সভা করা হয়। সভায় আমরা বোঝাতে সক্ষম হয়েছি যে, হাইড্রোজেন পার অক্সাইড একটি ক্ষারক জাতীয় তরল, যা কোনোভাবেই দাহ্য কিংবা বিস্ফোরক নয়। সিঙ্গাপুর পোর্ট যেখানে বিস্ফোরকসহ অন্যান্য ডেঞ্জারাস কার্গো নিয়মিত হ্যান্ডেল করছে সেখানে শুধু হাইড্রোজেন পার অক্সাইডের ওপর নিষেধাজ্ঞা আমাদের বিস্মিত করেছে। আমরা ট্রানজিট হিসেবে পণ্যটি গ্রহণের অনুরোধ জানালে তারা লিখিত আবেদন করতে বলেন।  

    এরপর গত ৮ আগস্ট আল রাজী কেমিক্যালের পক্ষে এমপিএ সিঙ্গাপুরকে ইমেইল দিয়ে হাইড্রোজেন পার অক্সাইডবাহী কনটেইনার সিঙ্গাপুর পোর্টে ট্রানজিট হিসেবে গ্রহণের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার অনুরোধ জানানো হয়। এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) পিএসএ থেকে ইমেইলে জানানো হয়েছে হাইড্রোজেন পার অক্সাইডের কনটেইনার গ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত স্থগিত হয়েছে এবং এ বিষয়ে সব শিপিং লাইনকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।  

    প্রকাশিত বৃহস্পতিবার ১১ আগস্ট ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad