Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    রূপগঞ্জে মাদ্রাসাশিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার ৪

     


    নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে একটি মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হুমায়ুন কবীর জানান, শনিবার (১৬ এপ্রিল) কায়েতপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

    গ্রেফতার চার জন হলো– ওই এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে মুন্না, আবুল হোসেনের ছেলে ওসমান, শাহীনের ছেলে সাকিব ও আবুলের ছেলে অনীক। তাদের বয়স ১৮-২০ বছরের মধ্যে।

    অভিযুক্ত পাঁচ জনের মধ্যে মামলার প্রধান আসামি হাসান মিয়ার ছেলে জহির হোসেন পন্টু পলাতক রয়েছে। 

    এর আগে, বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাতে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে ওই পাঁচ জনের বিরুদ্ধে। এই ঘটনার একদিন পরে শিক্ষার্থীর বড় ভাই বাদী হয়ে পাঁচ জনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

    মামলার বরাত দিয়ে ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, রাতে ওই মাদ্রাসার বাড়ির সামনের দোকানে পণ্য কিনতে যায়। সেখান থেকে তাকে জোর করে তুলে নিয়ে যায় জহির হোসেন পন্টু এবং গ্রেফতার হওয়া তার চার সহযোগী। পরে তারা ওই শিক্ষার্থীকে স্থানীয় বালুর চরে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। রাত ১২টার দিকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটিকে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

    পরিদর্শক (তদন্ত) হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার চার জনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলার এক নম্বর আসামি পন্টুকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

    প্রকাশিত: রবিবার ১৭ এপ্রিল ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad