• সর্বশেষ আপডেট

    বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন হালিশহর থানা শাখার উদ্যোগেসালাতু সালাম মাহফিল ও ইফতার মজলিশ পালন

     

    অপশক্তির গ্রাসে বিপন্ন দ্বীন মিল্লাত-মানবতার মুক্তি সাধনায় রমজানের শিক্ষা বাস্তবায়নে খেলাফতে ইনসানিয়াত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন হালিশহর থানা শাখা এর উদ্যোগে সালাতু সালাম মাহফিল ও ইফতার মজলিসের আয়োজন করা হয়।হালিশহর থানার সম্মানিত আহবায়ক জনাব নাফিস মোবারকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন ও বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লব এর কেন্দ্রীয় নেতা আল্লামা আরেফ সারতাজ ও বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আল্লামা শেখ নঈম উদ্দিন ও এডভোকেট নুশরাত আফরিন। শাহরিয়ার প্রান্তের পরিচালনায় সালাতু সালাম মাহফিল ও ইফতার মজলিশে আরো উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার আজিজ মাবরুর, আমির হোসেন, আশরাফ জুয়েল, মঈনউদ্দিন, সাইফুল ইসলাম, এন এম হোসাইন, হুসনে আরা বেগম, কামরুন নাজাত, শাহানা আক্তার, ফাতেমা ইফতেখার লিজা,রোকসানা আক্তার জলি, ফাহমিদা ইফতেখার লুবনা, ইঞ্জিনিয়ার হাজেরা আক্তার মাহি ও আঞ্চলিক নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষাবিদ উপস্থিত ছিলেন। বক্তারা তাদের বক্তব্যে বিশ্ব সুন্নী আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লবের প্রবর্তক ও মুসলিম মিল্লাতের মহান ইমাম- আল্লামা ইমাম হায়াত আলাইহি রাহমার দিক-দিশা তুলে ধরে বলেন রোজা ঈমানদারদের জন্য আত্বিক উন্নয়ন ও সাফল্য লাভ এবং বিপর্যয় থেকে রক্ষায় এক অপরিহার্য্য দ্বীনীস্তম্ভ ও জীবনের অবিচ্ছিন্ন অংশ। যার মূলে রয়েছে দয়াময় আল্লাহতায়ালা ও তার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রেমের অভিযাত্রা ও নৈকট্য সাধনা এবং যার শর্ত হলো আত্বার ঈমানী শুদ্ধতা। তারা বলেন আত্বার ঈমানী শুদ্ধতা নির্ভর করে সকল প্রকার বাতেল মত-পথ থেকে মুক্ত থাকার উপর এবং সব কিছুর উর্ধ্বে প্রাণাধিক প্রিয়নবীর প্রেমভিত্তিক হৃদয়ের উপর।বক্তারা আল্লামা ইমাম হায়াতের দিক দিশা তুলে ধরে বলেন দয়াময় আল্লাহতায়ালা ও প্রাণাধিক প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উদ্দেশ্যে প্রাণপ্রিয় মাওলায়ে আলাকে যে নিজের ঈমান-দ্বীন-জীবনের মাওলা মনে করে না এবং নূরে রেসালাত পবিত্র আহলে বায়েতের প্রতি প্রাণের উর্ধ্বে ভালোবাসার তাঁদের পক্ষে ও তাঁদের দুুশমনদের বিপক্ষে নয় সে মুসলিম নয়। ইমাম হায়াত বলেন. দ্বীন-খেলাফত-ইনসানিয়াতের পুনরুজ্জিবনে তাঁদের জীবন ও শাহাদাতের লক্ষ্য বাস্তবায়নে আমাদের জীবন উতসর্গীকৃত। বক্তরা আরো বলেন, রমজান যে কোন ত্যাগ ও উতসর্গেও বিনিময়ে দয়াময় আল্লাহতায়ালা ও তাঁর প্রিয়তম হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রেম ও শানে উতসর্গীকৃত হয়ে থাকার শিক্ষা, যার রুপরেখা কোন বাতিল জালেম অপশক্তিকে কোন অবস্থায় কবুল না করে ঈমান-দ¦ীন তথা সত্য ও মানবতার মুক্তির ধারা যে কোন মুল্যে এগিয়ে নেয়া, যার সর্বোচ্চ নিদর্শন কারবালার মহান শাহাদাত। আত্বার মূল অস্তিত্বের উৎস মহান রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে কোনভাবে বিচ্ছিন্ন থাকলে রেসালাত কেন্দ্রীক না হয়ে বস্তুভিত্তিক হয়ে থাকলে আত্বা মৃত অন্ধকার ও নাপাক হয়ে যায়, যেখানে নামাজ রোজা বা কোন এবাদতই আর কাজে আসেনা। তারা বলেন, অপরদিকে দ্বীনের সাথে সম্পূর্ণ একাকার হয়ে দ্বীনের বিরুদ্ধে বাতেলের আগ্রাসন ও মিল্লাতের সমস্যা সংকটে একাত্ম হয়ে দ্বীনের আধ্যাত্মিক রাজনৈতিক সবদিকে পূর্ণ বিশ্বস্ত না হলে কেবল একটা দিক রোজা দ¦ীনের সাথে প্রতারণা হয়ে দাড়ায়।এমতাবস্থায় রোজার সাথে সাথে আমাদেরকে রোজার আসল লক্ষ্য আত্বার উন্নয়নের শর্ত আত্বা ও জীবন সর্ব বাতেলের আধাঁর বিনাশ থেকে পবিত্র ও মুক্ত করে প্রিয়নবী কেন্দ্রীকতায় গড়ে তোলার অনুকুলে সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রতিষ্ঠায় এবং দ্বীন-মিল্লাত-মানবতার সংকটে নিজেদের ঈমানী দায়িত্ব পালনে রোজার শিক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানানো হয়।সমাবেশ শেষে সালাতুসালাম ও মোনাজাত পরিচালনা করেন আল্লামা দেলোয়ার আহসান।
    প্রকাশিত: সোমবার ১৮ এপ্রিল ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad