• সর্বশেষ আপডেট

    সুইডেন ও ইসরাইলের জবাব দেওয়া হবে: চরমোনাই পীর



    সুইডেনে কোরআন অবমাননা এবং মসজিদে আল-আকসায় নিরীহ নিরাপরাধ মুসলমানদের ওপর ইসরাইলের বর্বর হামলার প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে বিক্ষোভ করেছে ইসলামী আন্দোলন। শুক্রবার (২২ এপ্রিল) জুমার নামাজের পর দলটির ঢাকা মহানগর আয়োজিত বিক্ষোভ পূর্ব সমাবেশে দলীয় আমির ও চরমোনাই পীর  মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম সুইডেন ও ইসরাইলকে  জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন।

    চরমোনাই পীর বলেন, ‘বিশ্বের শত কোটি মানুষের ধর্ম ইসলামের সম্মানজনক প্রতিকগুলোর ওপরে আঘাত করা ও অবমাননা করা পশ্চিমাদের মানসিক রোগে পরিণত হয়েছে। ইসলাম বিদ্বেষী এক শ্রেণির লেখক, রাজনীতিবিদদের অব্যাহত মিথ্যা প্রচারণার ফলে পশ্চিমা দুনিয়ায় ইসলাম ফোবিয়ার মহামারি তৈরি হয়েছে।  কোটি মানুষের বিশ্বাসকে আঘাত করার প্রবণতা দিন দিন বাড়ছে। যা বিশ্বব্যাপী অশান্তি বাড়াচ্ছে ও ধর্মীয় সম্প্রীতি নষ্ট করছে।

    তিনি আরও  বলেন, পশ্চিমা এই ধর্মীয় উসকানির তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানায় বাংলার মানুষ। প্রতিবছর দফায় দফায় নিরিহ ফিলিস্তিনিদের ওপরে হামলা করা হয়। রমজান আসলেই ইহুদি দানব হিংস্র হয়ে ওঠে। বছরের পর বছর এসব দেখে উম্মাহ  বিরক্ত ও বিক্ষুদ্ধ।

    বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে চরমোনাই পীর বলেন, ‘বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম দেশ হিসেবে জাতিসংঘে ইসরাইলের বিরুদ্ধে ও ইসলাম ফোবিয়ার বিরুদ্ধে জোড়ালো অবস্থান নিন। বর্তমান জাতিসংঘ মুসলমানদের স্বার্থ রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে। এজন্য মুসলমানদের পৃথক মুসলিম জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠা করতে হবে। বিশ্বব্যাপী কুরআনী শাসন প্রতিষ্ঠা ও বাইতুল আকসা থেকে ইসরাইলিদের উচ্ছেদ করেই এর বদলা নেওয়া হবে।

    প্রকাশিত: শুক্রবার ২২ এপ্রিল ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad