• সর্বশেষ আপডেট

    ছাত্ররা স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে আবারও উজ্জ্বল ভূমিকা রাখবে: সাকি

     

    ছাত্ররা স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে আবারও উজ্জ্বল ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি।

    বুধবার(৩০ মার্চ) দুপুরে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের ১৩তম সম্মেলনে উপস্থিত থেকে তিনি একথা বলেন। এদিন সম্মেলনের উদ্বোধনী সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

    জোনায়েদ সাকি বলেন, 'ভাষা আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে সকল গণআন্দোলনে ছাত্ররা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। তিনি বর্তমান স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে ছাত্রদের প্রধান ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

    তিনি বলেন, 'বাংলাদেশে বর্তমানে প্রবল স্বৈরাচারী শাসন চলছে। বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে বাংলাদেশে ফ্যাসিবাদ কায়েম করেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার নামে জনগণকে বিভক্ত করে এখন পর্যন্ত তারা ক্ষমতায় টিকে আছেন। কিন্তু যেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলে তারা জনগণকে বিভক্ত করেছিলেন তা এখন আর সেইভাবে কাজ করছে না। আমরা সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহে দেখতে পাচ্ছি—এই অবৈধ সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। তারা এমন এক বাঘের পিঠে চড়ে আছেন, যার পিঠ থেকে নামলেই সেই বাঘ তাদের খেয়ে ফেলবে। আমরা বারবার বলছি, বাংলাদেশে বর্তমান স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন শুধুমাত্র একটি সুষ্ঠু ভোটের আন্দোলন নয়, আমরা আন্দোলন করছি জনগণের স্থায়ী ভোটাধিকারের জন্য। আমাদের অনেক বন্ধুরা বলেন, আমরা বর্তমানে দ্বি-দলীয়

    বৃত্তের বাইরে বিকল্প শক্তি গড়ে তোলার কাজ করছি। কিন্তু আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই—যারা এই ফ্যাসিবাদের কালে যেকোনভাবে জনগণকে বিভক্ত করছেন তারা এই ফ্যাসিবাদের পক্ষে কাজ করছেন।

    এসময় সংগঠনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজনের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ও গণসংহতি আন্দোলনের রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য তাসলিমা আখতার, পাটকল শ্রমিক নেতা অলিয়ার রহমান, বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অলিক মৃ ও বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান খান রিচার্ড।

    প্রকাশিত: বুধবার ৩০ মার্চ ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad