Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    শাহ আমানতে পিসিআর ল্যাব স্থাপন শুরু

      


    চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা পরীক্ষায় আরটিপিসিআর ল্যাব বসানোর অবকাঠামোগত কাজ শুরু হয়েছে। 

    শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ল্যাব স্থাপনে অবকাঠামোগত কাজ শুরু হয়। রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর। 

    বিভাগীয় স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ মোহসিন বলেন, শনিবার থেকে বিমানবন্দরে ল্যাব বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে তা সম্পন্ন করতে পারবো। কাজ শেষ হলে অনুমোদনপ্রাপ্ত চার প্রতিষ্ঠান তাদের ল্যাব আরটিপিসিআর মেশিন বসানোর মধ্য দিয়ে যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা শুরু করবে।

    গত ৫ ডিসেম্বর শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা পরীক্ষায় চারটি বেসরকারি ল্যাবকে অনুমোদন দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। অনুমোদন অনুযায়ী পরীক্ষার ফি নির্ধারণ করা হয় ১৬০০ টাকা। তবে সেটা কোনও যাত্রীর কাছ থেকে সরাসরি গ্রহণ করতে পারবে না প্রতিষ্ঠানগুলো। 

    অনুমোদন পাওয়া চারটি ল্যাব হলো—ঢাকা বাড্ডার প্রেসক্রিপশন পয়েন্ট, ধানমন্ডির ল্যাব এইড লিমিটেড, কুমিল্লার লাকসামের মর্ডান হসপিটাল প্রাইভেট লিমিটেড ও চট্টগ্রামের শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাবেটরি লিমিটেড।
    উল্লেখ্য, গত ১৬ নভেম্বর চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে আরটিপিসিআর ল্যাব বসানো সংক্রান্ত বিষয়ে জরুরি বৈঠকে বসে স্বাস্থ্য বিভাগ। এতে চট্টগ্রাম বিমান বন্দরে ল্যাব বসানোর জন্য ১৭টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আবেদন করা পত্রগুলো নিয়ে আলোচনা হয়। পরবর্তীতে এসব প্রতিষ্ঠানের সম্ভাব্যতা যাচাইবাছাইসহ যাবতীয় কার্যক্রম শেষে চারটি প্রতিষ্ঠানকে চট্টগ্রাম বিমান বন্দরে পিসিআর ল্যাব বসানোর সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়। 

    সর্বশেষ ৫ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে দ্রুত সময়ের মধ্যে চারটি প্রতিষ্ঠানকে ল্যাব স্থাপনের কাজ শুরু করতে বলা হয়। একই সঙ্গে পরীক্ষা ফি ১৬০০ টাকা প্রবাসী কল্যাণের মাধ্যমে গ্রহণ করতে বলা হয়েছে।


    প্রকাশিত: রবিবার ১৯ ডিসেম্বর ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad