Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    এসআইয়ের গোপনাঙ্গ কেটে দেওয়ার ঘটনায় মামলা, স্ত্রী কারাগারে

      


    রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার মালোপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ইফতেখার আল-আমিনের গোপনাঙ্গ কেটে ফেলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। সেই সঙ্গে এই পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রী রূপসী দেওয়ানকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত রূপসী দেওয়ান বোয়ালিয়া থানায় পুলিশি হেফাজতে ছিলেন। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার পর ভুক্তভোগী পুলিশ কর্মকর্তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আতিকুর রহমান বাদী হয়ে তার ছেলের স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। সেই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রূপসী দেওয়ানকে শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ আরও জানান, রূপসী দেওয়ান পুলিশের হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন এবং বাসার ময়লার ঝুড়ি থেকে সেটি বের করে দেন। তার দাবি, ইফতেখারের সঙ্গে একাধিক নারীর অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে। সেই ক্ষোভ থেকে তিনি এ ঘটনা ঘটিয়েছেন।

    রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘বৃহস্পতিবার বিকালে এসআই ইফতেখার আল-আমিন নগরীর সাগরপাড়া এলাকায় তার ভাড়া বাসায় ঘুমিয়ে ছিলেন। পারিবারিক কলহের জের ধরে তার স্ত্রী ধারালো অস্ত্র দিয়ে পুরুষাঙ্গ কেটে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জরুরি বিভাগে ভর্তি করে। সেখান থেকে তাকে নেওয়া হয় হাসপাতালের ২ নম্বর ওয়ার্ডে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাতেই ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো রয়েছে।


    প্রকাশিত: শুক্রবার ১০ ডিসেম্বর ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad