Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের ৯৪টি লিংক সরালো ফেসবুক

      


     সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর ৯৪টি লিংক (কটেন্ট) ফেসবুক থেকে এবং ২টি ভিডিও ইউটিউব থেকে সরানো হয়েছে। যদিও ফেসবুক থেকে ২৬৮টি লিংক এবং ইউটিউব থেকে ১২০টি ভিডিও লিংক সরানোর জন্য প্রতিষ্ঠানর দুটির কাছে অনুরোধ পাঠায় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। অবশিষ্ট লিংকগুলো রিভিউ করা হচ্ছে। অনুসন্ধান শেষে লিংকগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানানো হয়। এছাড়া মুরাদ হাসানের একটি আইডি রেখে ৫টি আইডি ব্লক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিটিআরসি।

    বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমে টেলিযোগাযোগ বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন টিআরএনবির সঙ্গে বিটিআরসি আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য জানানো হয়। মতবিনিময় সভায় বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া লিগ্যাল ও লাইসেন্সিং বিভাগের কমিশনার আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন, তরঙ্গ ব্যবস্থাপনা বিভাগের কমিশনার শাহীদুজ্জামান, বিভিন্ন বিভাগের মহাপরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন। টিআরএনবির সভাপতি রাশেদ মেহেদী ও সাধারণ সম্পাদক সমীর কুমার দে প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

    বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, ফেববুক, ইউটিউবের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক অন্যান্য সময়ের তুলনায় ভালো। তারা আমাদের অনুরোধ রাখে। শতকরা ৯৯ শতাংশ কথা তারা শুনছে। তাদের সঙ্গে আমরা প্রতি তিন মাস পর পর বৈঠক করি।

    বিটিআরসি চেয়ারম্যান স্বীকার করেন, ফেসবুক, ইউটিউবে কোনও খারাপ কিছু প্রকাশ হলে তা চট করে সরিয়ে ফেলার কোনও প্রযুক্তি আমাদের নেই। ফেসবুকের কাছে আমাদের অনুরোধ পাঠাতেই হয়। তিনি বলেন, কেউ খারাপ কিছু পোস্ট করলে ওই পোস্ট আমরা সংশ্লিষ্টদের নিয়ে ডিলিট করাতে পারি।
    এখনও অনলাইনে পাবজি, ফ্রি ফায়ার খেলা যাচ্ছে, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বিটিআরসির তরঙ্গ ব্যবস্থাপনা বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ বলেন, আমাদের দেশে যে পরিমাণ ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হচ্ছে তার ধারণ করার সক্ষমতা সিডিআরের পুরোপুরি নেই। বাইপাস হচ্ছে। এ কারণে ফিক্সড ব্রডব্যান্ডে গেম খেলা যাচ্ছে। সম্প্রতি সিডিআরের সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বরাদ্দ দেওযা হয়েছে। সক্ষমতা বাড়ানো হলে ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্কে গেম দুটো খেলা যাবে না। তিনি জানান, মোবাইল ইন্টারনেটে খেলা যায় না, কারণ অপারেটরগুলো সরাসরি তা মেনটেইন করে।

    বিটিআরসি চেয়ারম্যান জানান, ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) দিয়েও খেলা হচ্ছে বলে শুনেছি। কিন্তু ভিপিএন তো বন্ধ করা যাবে না। তাহলে অনেক কিছুই বন্ধ হয়ে যাবে। বিশাল সমস্যা তৈরি হবে। একটা ভালো করতে গিয়ে আরেকটা খারাপ আমরা করতে চাই না।

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad