Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাইলেন ডা: মুরাদ

      


    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন মন্ত্রিসভা থেকে সদ্য পদত্যাগকারী ডা. মো. মুরাদ হাসান। বুধবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের পেজে দেওয়া এক পোস্টে তিনি ক্ষমা চান।

    প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তোলা একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে মুরাদ লেখেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, পরম শ্রদ্ধেয় মমতাময়ী মা, বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা, আমি যে ভুল করেছি, তার জন্য আল্লাহর ওয়াস্তে আমাকে মাফ করে দেবেন। আপনি যে সিদ্ধান্ত দেবেন, তা আমি সবসময়ই মাথা পেতে নেব আমার বাবার মতো। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, জয় শেখ হাসিনা।

    এর আগে গতকাল মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে মা-বোনদের কাছে ক্ষমা চান তিনি।

    সেখানে তিনি লিখেছিলেন, ‌‘আমি যদি কোন ভুল করে থাকি অথবা আমার কথায় মা-বোনদের মনে কষ্ট দিয়ে থাকি তাহলে আমাকে ক্ষমা করে দিবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী মা দেশরত্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল সিদ্ধান্ত মেনে নিবো আজীবন। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।’

    উল্লেখ্য, নানা বিতর্কিত মন্তব্য করে আলোচনায় আসার পর ডা. মুরাদের একটি কল রেকর্ড ফাঁস হয়। এরপর সোমবার রাতে প্রধানমন্ত্রী তাকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন।

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মন্ত্রিসভা থেকে গতকাল মঙ্গলবার পদত্যাগ করেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। গতকাল বেলা ৩টায় পদত্যাগপত্র মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দফতরে জমা দেন তথ্য প্রতিমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন।

    পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিবের একান্ত সচিব মাহমুদ ইবনে কাশেম। এরপর তা প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির দফতরে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়। অনুমোদনের পর রাতেই এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

    প্রকাশিতঃ বুুুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad