Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    জিয়া স্মৃতি জাদুঘর সরিয়ে ফেলা হবে: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

      


    তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, চট্টগ্রামের পুরাতন সার্কিট হাউসে জিয়ার নামে থাকা স্মৃতি জাদুঘর সরিয়ে ফেলা হবে। জিয়াউর রহমান ছিলেন গুপ্তঘাতক ও পাকিস্তানের দালাল। রাষ্ট্রীয় অর্থে পরিচালিত কোনও জাদুঘর জিয়ার নামে থাকতে পারে না। তাই পুরাতন সার্কিট হাউসে জিয়ার নামের স্মৃতি জাদুঘর সরিয়ে ফেলা হবে। সেই ভবনকে পুনরায় সার্কিট হাউসে পরিণত করা হবে।

    সোমবার (০৬ সেপ্টেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

    তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু, বঙ্গমাতা, শেখ জামাল, শেখ কামাল, শেখ রাসেল, সুলতানা কামাল, রোজী জামাল, শেখ ফজলুল হক মনি, আরজু মনি, আবদুর রব সেরনিয়াবাত ও কর্নেল জামিলসহ ১৮ জনকে যারা হত্যা করেছে তাদের মদদদাতা, মূল পরিকল্পনাকারী এবং বাস্তবায়নকারী জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচার বাংলার মাটিতে হবে। 

    প্রতিমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমান খুনি এবং বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃতকারী। তাই জিয়ার নামে রাষ্ট্রের টাকায় জাদুঘর থাকতে পারে না। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে জাতির পিতার আজন্মের সংগ্রামের ইতিহাস যেমন জানতে হবে, তেমনি জাতির পিতার হত্যার মূল খুনির নামও জানতে হবে। 

    তিনি বলেন, এখনও যুদ্ধাপরাধী, স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি এবং ১৫ আগস্টের খুনি, যাদের ফাঁসি কার্যকর হয়েছে তাদের বংশধর, যুদ্ধাপরাধীদের বংশধররা দেশের বিরুদ্ধে চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। কাজেই এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলার মাটিতে আমরা জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচার করবোই, এটাই আমার শপথ ও অঙ্গীকার। 

    চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাসের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ফরিদ চৌধুরীর পরিচালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকরা।


    প্রকাশিত: সোমবার ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad