Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ক্ষমতাসীনদের পৃষ্ঠপোষকতায় ছাত্রলীগ আজ চরম বেপরোয়া


    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রদলের উদ্যোগে ছিন্নমূল মানুষের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী ও ত্রাণ বিতরণের কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের হামলায় ৩৫ জন নেতাকর্মী আহত হওয়ার ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

    আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি হামলাকারীদের গ্রেপ্তার এবং শাস্তি দাবি করেন।

    বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, হামলা-মামলা দিয়ে আওয়ামী লীগ বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করতে চায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর নির্মম হামলা তার নিকৃষ্ট প্রমাণ। সুবিধাবঞ্চিত মানুষ ও ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী এবং ত্রাণ বিতরণের মতো মানবিক কর্মসূচিতে হামলা চালিয়ে প্রমাণ করেছে তারা কতটা অমানবিক এবং নিষ্ঠুর।

    বিবৃতিতে তিনি ছাত্রলীগের এহেন কর্মকাণ্ডের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ক্ষমতাসীনদের পৃষ্ঠপোষকতায় তারা আজ চরম বেপরোয়া। 

    বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, শহীদ জিয়ার শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে পালিত অন্যান্য কর্মসূচিতেও বিভিন্ন জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে কোনো কর্মসূচিই পালন করতে দেওয়া হয় নাই। এমনকি দুস্থ ও এতিমদের জন্য রান্না করা খাবারও কেড়ে নেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ ভিন্ন মত এবং বিরোধী রাজনীতিকে সহ্য করতে পারে না। গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠিয়ে দেশে আজ ফ্যাসিবাদী শাসন কায়েম করা হয়েছে। বিরোধী দল বিশেষ করে বিএনপির জন্য রাজনীতির পথ সরু করে মাস্তানতন্ত্র ও মাফিয়াতন্ত্র কায়েম করা হয়েছে। যেখানে রাজনৈতিক কর্মসূচি এবং মানবিক ও সামাজিক কর্মসূচিতেও ন্যাক্কারজনক হামলা চালিয়ে পণ্ড করে দেওয়া হচ্ছে।

    বিবৃতিতে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিরপেক্ষভাবে ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনের সহবস্থান এবং স্বাধীনভাবে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নিশ্চিত করারও আহ্বান জানান।


    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রদলের উদ্যোগে ছিন্নমূল মানুষের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী ও ত্রাণ বিতরণের কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের হামলায় ৩৫ জন নেতাকর্মী আহত হওয়ার ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

    আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি হামলাকারীদের গ্রেপ্তার এবং শাস্তি দাবি করেন।

    বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, হামলা-মামলা দিয়ে আওয়ামী লীগ বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করতে চায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর নির্মম হামলা তার নিকৃষ্ট প্রমাণ। সুবিধাবঞ্চিত মানুষ ও ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী এবং ত্রাণ বিতরণের মতো মানবিক কর্মসূচিতে হামলা চালিয়ে প্রমাণ করেছে তারা কতটা অমানবিক এবং নিষ্ঠুর।

    বিবৃতিতে তিনি ছাত্রলীগের এহেন কর্মকাণ্ডের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ক্ষমতাসীনদের পৃষ্ঠপোষকতায় তারা আজ চরম বেপরোয়া। 

    বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, শহীদ জিয়ার শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে পালিত অন্যান্য কর্মসূচিতেও বিভিন্ন জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে কোনো কর্মসূচিই পালন করতে দেওয়া হয় নাই। এমনকি দুস্থ ও এতিমদের জন্য রান্না করা খাবারও কেড়ে নেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ ভিন্ন মত এবং বিরোধী রাজনীতিকে সহ্য করতে পারে না। গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠিয়ে দেশে আজ ফ্যাসিবাদী শাসন কায়েম করা হয়েছে। বিরোধী দল বিশেষ করে বিএনপির জন্য রাজনীতির পথ সরু করে মাস্তানতন্ত্র ও মাফিয়াতন্ত্র কায়েম করা হয়েছে। যেখানে রাজনৈতিক কর্মসূচি এবং মানবিক ও সামাজিক কর্মসূচিতেও ন্যাক্কারজনক হামলা চালিয়ে পণ্ড করে দেওয়া হচ্ছে।

    বিবৃতিতে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিরপেক্ষভাবে ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনের সহবস্থান এবং স্বাধীনভাবে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নিশ্চিত করারও আহ্বান জানান।

    প্রকাশিত: মঙ্গলবার ০১ জুন, ২০২১

    Post Top Ad