Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ভাস্কর্য রক্ষায় আইন তৈরির আহ্বান শাহরিয়ার কবিরের


    সংবিধানের ২৪ ধারার আলোকে ভাস্কর্য রক্ষায় আইন তৈরির জন্য সরকারকে আহ্বান জানিয়েছেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির।

    শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক পরিষদের আয়োজনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

    মঞ্চে উপস্থিত পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নাকে লক্ষ্য করে শাহরিয়ার কবির বলেন, সংবিধানের ২৪ ধারায় উল্লেখ করা আছে ‘বিশেষ শৈল্পিক কিংবা ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন বা তাৎর্যমণ্ডিত স্মৃতিনিদর্শন, বস্তু বা স্থানসমূহকে বিকৃতি, বিনাশ বা অপসারণ হইতে রক্ষা করিবার জন্য রাষ্ট্র ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন। ’ সম্প্রতি বঙ্গবন্ধুসহ বাঘা যতিনের ভাস্কর্য ভাঙা হয়েছে, যা আমাদের স্মৃতি নির্দশনকে বিনষ্ট করছে।  

    সংবিধানে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এগুলোকে রক্ষার কথা উল্লেখ থাকলেও এ নিয়ে কোনো আইন নেই। তাই ঐতিহাসিক স্মৃতি নির্দশনগুলো রক্ষার জন্য এখন আইন প্রণয়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিষয়টা মাথায় রেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মন্ত্রীকে অনুরোধ জানান শাহরিয়ার কবির।

    তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সড়কের পাশে সরস্বতীরও ভাস্কর্য রয়েছে। কিন্তু সরস্বতী যখন সড়কে থাকে তখন সে ভাস্কর্য, যখন সে মন্দিরে থাকে তখন সে দেবী।

    শাহরিয়ার কবির বলেন, যে রাজনীতি বাংলাদেশের সংবিধানকে চ্যালেঞ্জ করে সে রাজনীতি দেশে থাকতে পারে না। ধর্ম ও রাজনীতি সম্পূর্ণ ভিন্ন। একে অন্যের সঙ্গে মেশানো যাবে না।

    এ সময় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠশিল্পী মলয় কুমার গাঙ্গুলী ও শাহরিয়ার কবিরকে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়।

    অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ভূমি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের লিভার বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য সারওয়ার ওয়াদুদ চৌধুরী প্রমুখ।


    প্রকাশিত: শনিবার, ১৯ ডিসেমম্বর, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad