Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    আবারো বিদ্রোহী প্রার্থীদের কঠোর হুশিয়ারি মোশারফের


    চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।

    শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে হঠাৎ চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরীর বাসভবনে জরুরী বৈঠকে উপস্থিত হন সিটি নির্বাচনের নিতি নির্ধারক দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য 
    সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চসিকের সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এম রেজাউল করিম চৌধুরী, , সিডিএ চেয়ারম্যান  জহিরুল আলম দোভাষ (ডলফিন), আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, কোষাধ্যক্ষ আবদুছ ছালাম সহ নগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। 

    এসময়  ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে দলীয় মনোনীত প্রাথীর বাহিরে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে দাড়ানোর কোন সুজুগ নেই ৩/৪ দিনের মধে বিদ্রোহী প্রার্থীদের ডেকে তাদের জানিয়ে দেয়া হবে এর পরও যদি কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হয় তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাদের দল থেকে বহিষ্কারের করা।

    দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, সিটি নির্বাচলে দলীয় প্রার্থীদের জয় হতে হলে বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে যেতে হবে, না হয় দলীয় প্রার্থীরা হেরে যাও্যার সম্ভাবনা রয়েছে তাই বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে যেতেই হবে, না হয় তাদের আজীবনের জন্য দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।

    গত ১৪ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন থেকে জানানো হয় স্থগিত হওয়া নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে আগামী বছরের ২৭ জানুয়ারি। এ লক্ষ্যে কমিশন চারটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থীর মৃত্যুজনিত কারণে পুনঃতফশিল ঘোষণা করে একইদিন ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।


    প্রকাশিত: শনিবার, ১৯ ডিসেমম্বর, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad