Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    গাজিপুরে গণধর্ষণ, তিন ধর্ষক গ্রেফতার।


    মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম,গাজীপুরঃ গাজীপুরের টঙ্গীতে বিচারের আশ্বাসে বন্ধুর স্ত্রী'কে ডেকে অপহরণের পর পালাক্রমে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করেছে তিন নরপশু। 

    স্থানীয় দত্তপাড়া এলাকার রিয়া গার্মেন্টের মােড় থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। এ বিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় মামলা হলে ৩ জনকে গ্রেফতার করে শনিবার আদালতে প্রেরণ করেছে।

    মামলা সূত্রে জানা যায়, স্বামী মিলনসহ দত্তপাড়া আলম মার্কেট এলাকায় আলী হােসেনের বাড়ীতে ভাড়া থাকেন নির্যাতিতা গৃহবধু। 

    গত ১০ ডিসেম্বর রাতে পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে তাকে তালাক দিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দেন  গৃহবধুর স্বামী। স্বামী, স্ত্রী'র ঝগড়ার বিষয়টি মিমাংশার জন্য স্বামীর বন্ধু সৈয়দ রায়হান হােসেন ওরফে সাদ্দামকে অবহিত করে গৃহবধু।  সাদ্দাম পরদিন দুপুরে তাদের বাসায় এসে বিষয়টি মিমাংসা করার আশ্বাস দেন। ঘটনার দিন ২ টার দিকে সাদ্দাম ভুক্তভােগীর মোবাইলফোনে জানান যে, সে ঘটনাটি মিমাংসার জন্য দত্তপাড়া রিয়া গার্মেন্টসের মােড়ে অপেক্ষা করছেন।

    খবর পেয়ে গৃহবধু ওই স্থান থেকে তাকে আনতে যায়। এ সময় কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই অপহরণের উদ্দেশ্যে সাদ্দাম (২৯) পরিকল্পিত ভাবে কৌশলে একটি সিএনজিতে ওঠিয়ে নেন।
    পরে তাকে রাজধানীর ভাটারা নতুন বাজার বাঁশতলা এলাকায় তার ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে সাদ্দামসহ তার বন্ধু আব্দুর রহমান (৩২) ও জসিম (৩০) মিলে তাকে রাতভর জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষন করে এবং বিবস্ত্র অবস্থায় মােবাইল ফোনে ধর্ষণের ভিডিও ধারন করে। পরে যে কোন সময় তাকে ডাকলে আসতে হবে অন্যথায় ধারণকৃত ভিডিওটি সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে রাত ৮ টার দিকে একটি সিএনজিতে তুলে দেয়। 

    এ ঘটনায় নির্যাতিতা গত শুক্রবার টঙ্গী পূর্ব থানায় মামলা করলে পুলিশ একই দিন রাতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ওই তিন ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার করে। পুলিশ তাদের কাছ থেকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণকৃত মােবাইল ফোনটি উদ্ধার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের শনিবার আদালতের মাধ্যমে গাজীপুর জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

    প্রকাশিত: রবিবার, ২০ ডিসেমম্বর, ২০২০

    Post Top Ad