Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    বাংলাদেশ ভ্রমণে নাগরিকদের সতর্ক করলো ফ্রান্স!


    দিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ ইসলাম ও মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) কে অপমান করার প্রতিবাদে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিক্ষোভের পরিপ্রেক্ষিতে কয়েকটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে ভ্রমণে নিজ দেশের নাগরিকদের সতর্ক করে দিয়েছে ফ্রান্স। মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই সতর্কতা জারি করে।

    সম্প্রতি ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি স্কুলে মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র শিক্ষার্থীদের কাছে প্রদর্শন করেন এক শিক্ষক। এ ঘটনায় চেচেন বংশোদ্ভূত এক মুসলিম ওই শিক্ষককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। পরে পুলিশের অভিযানে হামলাকারী নিহত হয়। দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন ওই ব্যঙ্গচিত্র প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘ফ্রান্স কার্টুন প্রত্যাহার করবে না।’ ফরাসি প্রেসিডেন্টের এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশসহ বেশ কয়েকটি মুসলিম দেশে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে।

    এর প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেশটির নাগরিকদের জন্য একটি ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে। এতে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশ, ইরাক ও মৌরিতানিয়া সফরকালে ফরাসিদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। তাদেরকে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে যে কোনো বিক্ষোভ ও গণজমায়েত এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

    বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘বিশেষ করে ভ্রমণ এবং পর্যটক বা কর্মীরা যেখানে বেশি যাতায়াত করে সেসব স্থানে অতিরিক্ত সতর্কতা মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।’

    এর আগে ঢাকায় ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাওয়ের কর্মসূচি নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দলের শত শত নেতাকর্মী আজ মঙ্গলবার সকালে বিক্ষোভ মিছিল করেন। বিক্ষোভে ফ্রান্সের পতাকা এবং দেশটির প্রেসিডেন্টে ইমানুয়েল ম্যাক্রোর কুশপুত্তলিকা আগুন দিয়ে পোড়ানো হয়েছে। সেই বিক্ষোভ থেকে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের আহ্বানও জানানো হয়েছে।
     
    ফ্রান্সে ইসলাম এবং মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন নিয়ে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর সাম্প্রতিক কিছু বক্তব্যের প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন আজ ঢাকায় দূতাবাস ঘেরাওয়ের এই কর্মসূচি নিয়েছিল। সকালে দলটির নেতাকর্মীরা ঢাকায় বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তরগেটে জড়ো হয়ে সমাবেশ করেন।

    সমাবেশের পর ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাও করার শ্লোগান তুলে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলকারিরা ঢাকার শান্তিনগর মোড়ে পুলিশের বাধার মুখে অবস্থান নিয়ে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে তাদের ঘেরাও কর্মসূচি শেষ করেন। ইসলামী আন্দোলনের আমীর সৈয়দ রেজাউল করীম সহ দলটির নেতারা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন।

    প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad