Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    নোয়াখালীতে পাওনা আদায় করতে গিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ গ্রেপ্তার ২

    মোঃ ইব্রাহিম, নোয়াখালীঃ- নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় পাওনা টাকা আদায় করতে গিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার সকালে আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তার দুইজন হলেন- চাটখিল পৌরসভার মধ্য ভীমপুর এলাকার নাঈম হোসেন ও তার সহযোগী ইউসুফ সুদানি।

    পুলিশ জানায়, লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার ওই তরুণীর বাবা চাটখিল পৌরসভার ভীমপুর মহল্লায় ভাড়া বাসায় থাকেন। মধ্য ভীমপুর এলাকায় নাঈমদের দোকান থেকে ওই তরুণীর বাবা ১৮০ টাকা বাকিতে সদাই আনেন। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় এ টাকা আদায়ের জন্য নাঈম ওই তরুণীর বাসায় যায়। ঘরে ঢুকে তরুণীকে তার বাবা-মা কোথায় জিজ্ঞেস করে দোকান বাকির টাকা চায়। এসময় তার বাবা-মা বাড়িতে নেই বললে নাঈম তার মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। আশপাশের লোকজন ঘটনাটি দেখে নাঈমকে আটক করে রাখে। খবর পেয়ে নাঈমের বন্ধু একই এলাকার ইউসুফ সুদানি এসে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

    পরদিন সন্ধ্যায় মেয়েটির বাবা নাঈম ও ইউসুফকে আসামি করে চাটখিল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলে তাৎক্ষণিক পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।

    থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রবিবার সকালে ভুক্তভোগীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ও ২২ ধারা জবানবন্দির জন্য জেলা জজ আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া আসামিদেরও কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    প্রকাশিত: রবিবার ২৩, অগাস্ট ২০২০

    Post Top Ad