Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    আগামীকাল পবিত্র হজ্জ, হাজীরা আজকে অবস্থান করবেন মিনায়।

    মোঃ ওমর ফারুক, সৌদি আরবঃ- আগামীকাল ৯ই জিলহজ্জ পালিত হবে এ বছরের হজ্জ, সকল হাজীগণ আজকে  অবস্থান করবেন মীনায়  ।

    বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এ-র কারণে সীমিত পরিসরে পালিত হচ্ছে এবারের হজ্জ সৌদি আরবে অবস্থান করা বিভিন্ন দেশের প্রবাসী নাগরিক ও সৌদি নাগরিক এ-র সমন্বয়ে সীমিত সংখ্যক হাজী নিয়ে পালিত হচ্ছে এবারের হজ্জ।

    ৭ ই জিলহজ্ব রাতেই  ইহরাম পরিধান করে পবিত্র কাবা শরীফ তাওয়াফ করে মক্কা থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দক্ষিণ- পূর্বে অবস্থিত মিনার উদ্দেশ্য রওয়ানা হন  সকল হাজীগণ। প্রতি বছরই এ সময়ে মিনার পথে রওয়ানা দিতেন পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আসা প্রায় ২৫ লাখেরও বেশী হাজী।
    আকাশ বাতাসে লাব্বাঈক আল্লাহুমা লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত করে হাজীরা মিনায় গিয়ে উপস্থিত হন।

    মিনায় হাজীদের জন্য তৈরী করা আছে তাবু  এবছর করোনা সংক্রমণ এ-র কারণে তাবুগুলো আগে থেকেই স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী তৈরী করা হয়েছে।


    ৮ জুলাই বুধবার সারা দিন হাজীগন মিনায় অবস্থান করবেন। ৯ই জিলহজ্জ ফজরের নামাজের পরে মীনা থেকে আরাফাতে উদ্দেশ্য রওয়ানা দিতে হবে যোহর নামাজর আগেই সকল হাজীগণ আরাফাতের ময়দানে মসজিদে নামিরায় এবং এ-র আশেপাশে অবস্থান করবেন এবং এ-ই মসজিদে নামিরায় নতুন খতিব শায়খ আবদুল্লাহ বিন সোলাইমান আল মানিয়া এ বছর হজ্জের খুতবা পাঠ করবেন এবং আরবী ভাষার সাথে আরও ১০ টি ভাষায় অনুবাদ করে প্রচার করা হবে এবারের হজ্জের খুতবা যার মধ্যে থাকবে বাংলা ভাষাও যা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যম ও টেলিভিশন এ এক যোগে প্রচার করা হবে। ৯ই জিলহজ্ব সন্ধা পযন্ত হাজীরা অবস্থান করবেন আরাফাতের ময়দানে।   

    এ-র পরে সুর্যাআস্তের পরে হাজীরা রওনা দিবেন মুজদালিফার পথে মুজদালিফায় ১০ই জিলহজ্ব ফজরের নামাজের পরেই রওনা দিবেন মিনার পথে মিনায় এসে জামারাতে শয়তানকে কংকর নিক্ষেপ করে যেতে হবে মসজিদুল হারাম শরীফের ভিতর দিয়ে গিয়ে কোরবানী করে মাথার চুল কেটে কাবা শরীফ তাওয়াফ করতে হবে এবং এটাই হলো      হজ্জের ফরজ তাওয়াফ এ-ই তাওয়াফ অবশ্যই ১০ জিলহজ্ব রাত ১২টার আগে করতে হবে এবং করতে হবে সাফা ও মারওয়া ছাহিহ। এ-র পর  ১১ই জিলহজ্ব ও ১২ই জিলহজ্ব জামারাতে শয়তানকে কংকর নিক্ষেপ করার পর কাবা শরীফে এসে বিদেয়ী তাওয়াফ করার মধ্য দিয়েই হজ্জের সকল রীতিনীতি সম্পন্ন হবে।

    প্রথমদিন শুধু বড় শয়তানকে পাথর নিক্ষেপ করতে হবে ৭টি পাথর এ-র পরের দিন হতে বড় মিডিয়াম ও ছোট তিন শয়তানকে পর্যায়ক্রমে ৭ টি করে পাথর মারতে হয়।
    আরব নিউজ বরাতে জানা যায় প্রতিদিন ৩৫০০ পরিছন্নতা কর্মী কাজ করছে হজ্জের নির্ধারিত স্থানগুলোকে জীবানুমুক্ত করার কাজে এবং ১৮ হাজার ৪৯০ জন নিরাপত্তা কর্মী ২৪ ঘন্টা হাজীদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবেন। 

    সূত্রঃগালফ নিউজ, আরব নিউজ  ।           

    প্রকাশিত: বুধবার ২৯, জুলাই ২০২০

    Post Top Ad

    সজীব হোমিও প্যাথিক হল