Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    পাঁচতলা ভবন থেকে তিন শিশুকে ছুড়ে ফেললেন প্রতিবেশী

    শিশুকে ছুড়ে ফেললেন

    প্রতিবেশীর সাথে ঝগড়ার জেরে দুই বছর এবং ছয় বছরের দুই শিশুকে পাঁচতলা থেকে ফেলে দিলেন এক ব্যক্তি। আরেক শিশুকেও ফেলে দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু কোনও ভাবে রেলিংয়ে আটকে প্রাণে বেঁচে যায় সে।

    রোববার কলকাতার বড়বাজার থানা এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,  দুবছরের শিশু শিভম সাউয়ের মৃত্যু হয়েছে। আর ছয় বছরের বিশাল সাউয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

    ঘটনার পর অভিযুক্ত শিবকুমার গুপ্তকে আটক করে জেরা করছে পুলিশ। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,  ১৫ দিন আগে শিবকুমার গুপ্তর সঙ্গে মৃত শিশুর বাবার গণ্ডগোল হয়। তারই জেরে এদিন বিকেলে শিভম ও বিশালকে বারান্দা থেকে নীচে ফেলে দেন শিবকুমার। পাঁচতলায় একাধিক পরিবার বসবাস করে। বিকেলে কয়েকটি শিশু খেলছিল পাঁচতলার বারান্দায়। তাই নিয়েই গণ্ডগোল শুরু হয়। সেই সময় শিবকুমার হঠাৎই শিভম ও বিশালকে রেলিংয়ের উপর দিয়ে ফেলে দেন।


    অন্য প্রতিবেশীরা বাধা দেওয়ার আগেই নীচে পড়ে যায় শিভম ও বিশাল। তৃতীয় শিশুকে শিবকুমার ধাক্কা মেরে ফেলতে গেলে বাকিরা আটকে দেন।

     বারান্দার রেলিং ধরে কোনও মতে প্রাণে বাঁচে শিশুটি। তবে গুরুতর জখম হয় শিভম ও বিশাল। হাসপাতালে নিয়ে গেলে শিভমকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিত্সকরা। বিশালের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

    প্রতিবেশীদের অভিযোগ, নিজের স্ত্রীর সঙ্গেও অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করতেন শিবকুমার। কয়েক বছর আগে তার স্ত্রী পানিতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন। সেই ঘটনার পর থেকে কার্যত ঘরবন্দী হয়েই থাকতেন শিবকুমার।

    বড়বাজার থানার তদন্তকারী কর্মকর্তারা এবং কলকাতা গোয়েন্দা পুলিশের হোমিসাইড শাখার কর্মকর্তারা এদিনের ঘটনার পর শিবকুমারকে জেরা করে জানার চেষ্টা করছেন, কেন তিনি এ ধরনের অপরাধ করলেন।


    প্রকাশিত: সোমবার, ১৫ জুন, ২০২০

    Post Top Ad