Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    সাঈদীর মুক্তি চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট, আটক জামায়াত নেতা


    এম এ মেহেদি, প্রধান প্রতিবেদকঃ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আন্তার্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি চেয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় সীতাকুণ্ডে জামায়াত নেতা নুরুল কবিরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

     তিনি সীতাকুণ্ড যুবাইদিয়া মহিলা মদ্রাসার প্রিন্সিপাল ও উপজেলা জামায়াতের ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক। সোমবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার গোডাউন রোডে নিজ বাসভবন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

    এর আগে রাতে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন বারৈয়াঢালা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম।

    গত ১ মে সাঈদীর মুক্তি চেয়ে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে থেকে একটি স্ট্যাটাস দেন অধ্যক্ষ নুরুল কবির। এর প্রতিবাদ জানান উপজেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতারা। পরে পোস্টটি মুছে ফেলেন তিনি।

    সাঈদীর মুক্তি চেয়ে নিজ ফেসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাস দিয়ে পরে সেটা সরিয়ে নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন নুরুল কবির।

    এই জামায়াত নেতা ২০১৩ সালে সাঈদী মুক্তি আন্দোলনের সীতাকুণ্ড উপজেলার সমন্বয়ক ছিলেন বলে দাবি করেন উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শিহাব উদ্দিন।


    সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা দিগন্ত নিউজকে জানান, এর আগেও  নাশকতার মামলায় ২০১৩ ও ২০১৪ সালে একাধিকবার গ্রেপ্তার হয়েছিলেন নুরুল কবির। আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

    মাদ্রাসা পরিচালানা কমিটির সভাপতি পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম দিগন্ত নিউজকে বলেন, ‘নুরুল কবির জেল থেকে ছাড়া পেয়ে এসে মৌখিকভাবে অঙ্গীকার করেছিল আর জামায়াতের রাজনীতি করবে না।

     এ কারণে আমরা তাকে আবার স্বপদে বহাল করেছিলাম। এখন সে সাঈদীর মুক্তির জন্য ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়েছে, সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

    সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায় দিগন্ত নিউজকে বলেন, ‘সাঈদীর রায় আদালতের বিষয়। এ নিয়ে সরকারি সুবিধাভোগী কেউ মন্তব্য করতে পারেন না, নুরুল কবিরও এটি করতে পারেন না বিষয়টি খতিয়ে দেখব।’

    দিগন্ত ডেস্কঃ এস বি কে


    প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ০৫ মে, ২০২০

    Post Top Ad