Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    দূর্নীতির বরপুত্র নান্দাইল পৌর মেয়র রফিক।


    মোঃ ফজলুল হক ভুইয়া, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:- ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভার মেয়র মো. রফিক উদ্দিন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ  সংবাদ  সম্মেলন করে অনাস্থা জানিয়েছেন পৌরসভার ৯ কাউন্সিলর। 

    সোমবার (৪ মে) বেলা ১১টায় চন্ডিপাশা নতুন বাজারস্থ কাউন্সিলর শাহ আলম হেলিম মাহিনের কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

    সংবাদ সম্মেলনে, পৌর মেয়র রফিকের বিরুদ্ধে  ব্যাপক অনিয়ম, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় বরাদ্দকৃত অর্থ আত্মসাৎ, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও নির্বাচিত কাউন্সিলরদেরকে  বাদ দিয়ে এককভাবে পৌর কার্যক্রম পরিচালনা করার গুরুতর অভিযোগ  করেন  ২ নং প্যানেল মেয়র শাহ আলম হেলিম মাহিন।

    এসময় তারা জানান, করোনা মহামারীতে  স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্দকৃত অনুদান কাউন্সিলরদের অবহিত না করে এককভাবে নামকাওয়াস্তে কিছু বিতরণ  করে  বাদবাকি  বরাদ্দ আত্মসাৎ  করার পায়তারা করে যাচ্ছেন এই মেয়র।

    এছাড়া পৌর কার্যক্রমের সকল গুরুত্বপুর্ণ তথ্য তিনি গোপন রাখেন এবং কাউন্সিলরদেরকে জানতে দেয়া হয়না।  তাছাড়া পৌরসভার উন্নয়ন কাজের এডিপি, নগর উন্নয়ন প্রকল্প ও জাইকা প্রকল্পের কাজেও সীমাহীন অনিয়ম ও  দুর্নীতি করে যাচ্ছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। 

    বক্তারা অভিযোগ করেন পৌর মেয়র নিজে, তার ভাই, ভাতিজা ও নিজ পুত্রের মাধ্যমে পৌরসভার সকল টেন্ডার নিয়ন্ত্রন ও পরিচালনা করেন বলেই উন্নয়ন কাজের মান নিম্মমানের হয়।

     সংবাদ সম্মেলনে  আরো জানান, পৌর মেয়র পৌরসভার হাটবাজার, বাসাবাড়ির প্রাপ্ত ট্যাক্স ও যান্ত্রিক রোলার থেকে প্রাপ্ত আয়ের কোন ধরনের হিসাব-নিকাস সুুষ্ঠুভাবে সংরক্ষন করেনা। নিজ ইচ্ছায় আয়ের খাতগুলো ধ্বংস করে দিচ্ছেন।

    বিগত ৪ বছরে সরকারি বিধি মোতাবেক  প্রকাশ্যে কোন  বাজেট ঘোষণা করা হয় নি। পৌরসদরের সুশীল সমাজ/কাউন্সিলরগণ বাজেটের প্রস্তাবিত আয়-ব্যয়ের বিষয়ে কোন মতামত প্রদান করতে পারেনি। এছাড়া জাইকা প্রকল্প থেকে দেয়া জিপ গাড়িটি ও পৌরসভার মোটরসাইকেল নিজ পরিবারের লোকজন ব্যবসায়িক কাজে ব্যাবহার করেন।

    ইতিপূর্বে প্রথমবার পৌরসভার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার আড়াইবছরে রফিক উদ্দিন ভূইয়ার  ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি ও অদক্ষতার কারণে তাকে পৌর সভার চেয়ারম্যান পদ থেকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বহিষ্কার করা হয়েছিল।

    অন্য কাউন্সিলর হলেন, ১ নং প্যানেল মেয়র মোঃ রেজাউল করিম রিপন, ৯নং ওয়ার্ড  কাউন্সিল রাবিয়া খানম, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর  শাহিনুর রহমান শাহীন, ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিউল্লাহ, ৩ নং ওয়ার্ড  কাউন্সিলন দিলোয়ার হোসেন, ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মানিক মিয়াসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

    দিগন্ত নিউজ ডেস্কঃএস বি কে

    প্রকাশিত: সোমবার, ০৪ মে, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad