Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ৯৪ বছর বয়সী বৃদ্ধ সহ আহত -৪

                                   

    মোংলায় জমি দখলে বাধা দিতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের দায়ের কোপে গুরুত্বর জখম হয়েছেন ৯৪ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ। শনিবার সন্ধায় মোংলা উপজেলার চিলা ইউনিয়নে বাজার সংলগ্ন কেয়াবুনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

    এ সময় সন্ত্রাসীদের হাত থেকে ওই বৃদ্ধ কে উদ্ধার করতে এসে হামলার স্বীকার হন আরও ৩ জন। এলাকবাসী আহতদের রক্তাক্ত অবস্থায়  উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি করে। তবে বৃদ্ধের অবস্থার অবনতি হলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়।  

    এঘটনায় এলাকায় উক্তেজনা বিরাজ করছে।পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জমি জমা সংক্রান্ত  বিরোধের জেরে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের সাথে বিরোধ চলে আসছিল আহত পিতর বাছাড়ের। ঘটনার দিন সন্ধা সাড়ে ৬ টার দিকে চিলা কেয়াবুনিয়া জাহিদ সরদারের বাড়ীর সামনে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী'রা পিতর বাছাড়ের এক খন্ড জমি জোর পূর্বক দখল করতে যায় শ্যামল নাথ, সাখী নাথ, মোস্তাকিন, ইমরান সহ একদল সন্ত্রাসীরা। 

    এসময় ৯৪ বছরের বৃদ্ধ পিতর বাছাড় বাধা দিতে আসলে তাকে দা দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ফেলে আসে। বৃদ্ধের নাতি সম্রাট বাছাড় তার দাদা কে উদ্ধর করতে ছুটে আসলে সেও হামলার স্বীকার হয়। আহতদের ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা দ্রুত পালিয়ে যায়।

    ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা। তবে বৃদ্ধের অবস্থার অবনতি ঘটলে রবিবার সকালে আশংখ্যা জনক অবস্থায় বৃদ্ধকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এম্বুলেন্সে খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। প্রচুর রক্ত ক্ষরনের তার অবস্থা সংকা মুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বৃদ্ধের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বৃদ্ধের স্বজনরা।  


    এলাকাবাসী জানায়, ভূমি দস্যু শ্যামল নাথ, সাখী নাথ চিলা এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে রেখেছে। তাদের সন্ত্রাসী কার্যকলাপের প্রতিবাদ করতে গেলে হামলা মামলার স্বীকার হতে হয়। শ্যামল নাথ এলাকার বহু নীরিহ মানুষের নামে প্রায় ১০/১২ টি মিথ্যা মামলা করে হয়রানি করেছে। 

    ইতিমধ্যে এই ভূমি দস্যু গ্রুপটি এলাকার আবুল হোসেন, সেন্ট পলস্ উচ্চ বিদ্যালয় এর প্রক্তন শিক্ষক  প্রশান্ত নাথ, পিতর বাছাড় সহ জোর পূর্বক দখল করে রেখেছে। এছাড়া এই সন্ত্রাসী গ্রুপটির বিরুদ্ধে মোংলা থানায় চাদাবাজী, অপহারন, ভূমি দখল, সহ একাধিক মামলা রয়েছে। 

    মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, বৃদ্ধকে মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।আসামীদের গ্রেপ্তারে ঐ এলাকায় পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

    দিগন্ত নিউজ ডেস্ক/কেএস

    প্রকাশিত: রবিবার, ০৩ মে, ২০২০

    Post Top Ad