Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    টঙ্গীবাড়ীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বৃদ্ধ ও নারী আহত

    টঙ্গীবাড়ীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বৃদ্ধ ও নারী আহত

    টঙ্গীবাড়ী(মুন্সীগঞ্জ)::  মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার সোনারং টঙ্গীবাড়ী ইউনিয়ন এর পুরাপাড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হাজী আবদুল হাই দেওআন(৬৫)তার ছেলে নজরুল ইসলাম দেওয়ান(৩৭)ও পূত্র বধু ঝুমা আক্তার (৩০) এর উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। 

    আবদুল হাই দেওয়ান আজ সোমবার সাংবাদিকদের জানান, আমি একটি জমি কিনেছি আমার ভাইয়ের কাছ থেকে কিন্তু সেই জমিতে আমি কোন গাছের চারা লাগালে হারুন দেওয়ানরা জোর পূর্বক তুলে ফেলে দেয় এবং আমার ও তার বাড়ীর রাস্তা মাঝখানে যে রাস্তা আছে তার কিছু অংশের উপর অন্যায় ভাবে সে ঘর তুলে রেখেছে, আমি হারুন দেওয়ান কে বলেছি তুমি সার্ভেয়ার আনো প্রয়োজনে সিমানা নির্ধারণ করে নাও টাকা আমি দেব।

    তবুও সে নানা ধরনের অযৌক্তিক কথা বলে ও অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে। কিন্ত  গত ১৬ মে, মো. হারুন দেওয়ান (৬০) ও তার  ছেলেগন মো. রাজীব দেওয়ান( ৩০) মো. জুয়েল দেওয়ান (২৮) মো. নাঈম দেওয়ান (২২)ও ডোরাবতি গ্রামের আমীর বেপারীর ছেলে  মেহেদি হাসান(২৫)সহ অপরিচিত আরো ৩/৪ জন সন্ত্রাসী আমার বাড়িতে এসে দেশীয় অস্ত্র, কুড়াল, সাবাল দিয়ে আমার বাড়ীতে হামলা করে এবং আমাকে বেধড়ক মারধর করে ।


    তারা আমার মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত করে, আমার ছেলেকেও অনেক মারধোর করে নিলা ফুলা করে আমার পুত্রবধূ ঝুমা আক্তার আমাদের  বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তার ওপরও হামলা করে এবং আমাদের মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। আমার বাড়িঘরে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আমার ঘরের টিন বিনষ্ট করে।

     আমাদের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে আমরা এলাকাবাসীর সহযোগিতায় হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেই। 

    আর তার এ সমস্ত বাজে কর্মকাণ্ডের জন্য এর আগেও আমি তার বিরুদ্ধে টঙ্গীবাড়ী থানায় কয়েকবার সাধারণ ডায়েরি করেছি।  


    এ ব্যাপারে আমার ছেলে মো. নজরুল ইসলাম টঙ্গীবাড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত  হারুন দেওয়ান গংদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি। 


    অভিযোগের বিষয়ে টঙ্গীবাড়ী থানার ওসি তদন্ত গোলাম রসুল মোল্লা জানান আমরা একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ।

    দিগন্ত নিউজ ডেস্ক/কেএস

    প্রকাশিত: সোমবার, ১৮ মে, ২০২০

    Post Top Ad