Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের মানবিকতায় স্বস্তিতে কৃষকরা



    করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বোরো মৌসুমে ধান কাটার  শ্রমিকরা বিভিন্ন জেলা থেকে আসতে না পারার কারণে দেখা দিয়েছে তীব্র শ্রমিক সংকট। এ অবস্থায় দরিদ্র ও বর্গাচাষীদের ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

     তারই ধারাবাহিকতায় আজ সকালে  গোপালগঞ্জ জেলা শাখা ছাত্রলীগের ২৫ সদস্যের একটি দল উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার সদানন্দ বিশ্বাসের জমির ধান কেটে দেয়। ধান কাটার পরে সেই ধান আবার জমির মালিকের বাড়িতে পৌঁছে দেয় ছাত্রলীগের এই দলটি।

    উক্ত ধান কাটায় স্বেচ্ছায় অংশগ্রহণ করেন ছাত্রলীগ গোপালগঞ্জ জেলা শাখার সহ-সভাপতি গাজী ফরহাদ হোসেন (রনি), ফারুক খান (রিপন) সাবেক শহর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক, নবিন মন্ডল সহ-সম্পাদক ও নাজিম উদ্দিন সহ-সম্পাদক জেলা ছাত্রলীগ। এছাড়াও এ সময় উপস্থিত ছিলো বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রনেতা প্রান্ত, দিগন্ত, মেহেদী।

    এদিকে এই মহামারির সময়ে বিনা পারিশ্রমিকে ছাত্রলীগের এমন মহান কর্মকাণ্ডে খুশি দরিদ্র কৃষকসহ এলাকাবাসী। তারা মনে করেন লেখাপড়ার পাশাপাশি ছাত্রলীগ নৈত্তিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে উঠছে। এমন বিরল ঘটনায় সকলেই ছাত্রলীগের প্রতিটি সদস্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে দোয়া ও আশীর্বাদ করেন।

    এ ব্যাপারে কথা হলে গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল হামিদ বলেন, ইতিমধ্যে আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ ক্রমে ধান কাটার কার্যক্রম শুরু করেছি। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীগন গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া, মুকসুদপুর, সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়ন ও রঘুনাথপুরে ধান কাটা কার্যক্রম শুরু করেছে। করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে স্বেচ্ছায়, বিনা পারিশ্রমিকে প্রতিটি উপজেলার ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ধান কাটার জন্য ছাত্রলীগের কমিটি গঠন হচ্ছে। ইনশাআল্লাহ আমরা করোনাভাইরাস মোকাবেলা করতে দরিদ্র কৃষকের পাশে সর্বত্রই থাকবো। যাতে করে কৃষকের বড় ধরনের কোনো ক্ষতির সম্মুখীন না হতে হয়।

    প্রমথ রঞ্জন সরকার, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি। 

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২০

    Post Top Ad