Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ঝালকাঠিতে ভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেপর্যাপ্ত উপকরন নেই


    ঝালকাঠিতে ৪০ জনেরও বেশি প্রবাসীদেশে এরমধ্যে ৬ জনকে হোম কোয়ারেইন্টাইনে ঝালকাঠিতে ভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেপর্যাপ্ত উপকরন নেই 

    মোঃ আল-আমিন, ঝালকাঠিঃ-ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় উপকরন পর্যাপ্ত নেই। রোগীদের সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য সেবাদিতে অক্সিজেন ও নেব্যুলাইজার ছাড়া আধুনিক কিছুই না থাকায় সঠিকপরীক্ষা নিরীক্ষা ও সেবা নিয়ে শঙ্কাগ্রস্থ রোগীরা। হাসপাতলে একটিওআইসিইউ বেড নেই, ভেন্টিলেটরও নেই। চিকিৎসক, নার্স ও অন্যকর্মীদের মাস্ক, গাউন কোনো কিছুই পর্যাপ্ত নেই। ইতিপূর্বেভাইরাস প্রতিরোধী পোশাকের (পিপিই) চাহিদা পাঠানো হলেওচিকিৎসক ও নার্সদের নিরাপত্তা বা সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় মেডিক্যালমাস্ক ও ইউনিফর্ম এখন পর্যন্ত সরবারহ করা হয়নি।

    একাধিক সূত্র ওস্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র বলছে, বিশ^জুড়ে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর এউপজেলা ৪০ জনেরও বেশি প্রবাসী দেশে ফিরেছেন। এরমধ্যে ৬ জনকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে তাদের নিজ বাসায় হোম কোয়ারেইন্টাইনেরাখা হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে স্থানীয়কর্মকর্তারা সাধ্যমতো প্রস্তুতি আলাদা বেড-ইউনিট সংরক্ষণ করেছে।সাথে প্রস্তুত রাখা হয়েছে স্বাস্থ্যকর্মীদেরও। তবে সংকট রয়েছে চিকিৎসাউপকরণের। ফলে মাঠপর্যায়ের এই হাসপাতালকে কেবলই প্রাথমিক ধাপেরকরোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবার উপযোগী করে সাজানো হচ্ছে এবং তথ্যসংগ্রহ করার কাজ করছে। তবে জ্বর-সর্দি, হাঁচি-কাশির উপসর্গ নিয়েআসা রোগীদের জন্য আউটডোর এলাকায় আলাদা চিকিৎসা ব্যবস্থা চালুকরা হয়নি।

    জানা গেছে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবনের ২য় তলায়৪টি বেড আইসোলেশন ইউনিটের জন্য সংরক্ষণ করে দেওয়া হলেওহাসপাতালের যেকোনো নির্দিষ্ট ভবনে করোনাভাইরাসের রোগীদের সেবারকাজে ব্যবহার করার জন্য আলাদা করে রাখা হয়নি। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেরটিএইচও ডাঃ আবুল খায়ের রাসেল জানান, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় করোনা মোকাবেলা করতে প্রস্তুত। করোনা মোকাবেলায় যে সব উপকরনপ্রয়োজন তা পর্যাপ্ত নয়। এ কারনে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে জরুরি কিছুউপকরণ সংগ্রহে রাখা হয়েছে। শীঘ্রই চাহিদা অনুযায়ী স্বাস্থ্য উপকরনসরবারহ করা হবে। তিনি বলেন, এ উপজেলায় ৬ জনকে করোনা ভাইরাসআক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেইন্টাইনে রাখা হয়েছে, এদের স্বাস্থ্য ক্রমশউন্নতি হচ্ছে। প্রবাস ফেরৎ সকলকে ডাক্তারের পরামর্শ নেয়ার অনুরোধকরেন তিনি।

    প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ, ২০২০

    Post Top Ad