Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ১৯৭২ সালের স্মৃতিকে ঘিরেই ঝালকাঠিতে মুজিব বর্ষ উদযাপন


    মোঃ আল-আমিন, ঝালকাঠিঃ- ১৯৭২ সালের স্মৃতিকে ঘিরেই ঝালকাঠিতে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালিত হয়েছে। ১৯৭২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে স্টীমারযোগে সুন্দরবন যাওয়ার সময় যাত্রাবিরতিতে ঝালকাঠি পৌরসভা খেয়াঘাট এলাকার বধ্যভূমিতে নামেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেদিন ঝালকাঠির সেই বধ্যভূমি দেখে কেঁদে ছিলেন জাতীর জনক শেখ মুজিব। সেখানে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকবাহিনীর হাতে নিহত মানুষের কঙ্কাল দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। ১৯৭২ সালের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেখে সেই বধ্যভূমি এখন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সৃতিস্তম্ভ।

    এ উপলক্ষে মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) সকাল ১০টায় মুক্তিযোদ্ধারা, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত শহরের পৌর খেয়াঘাট এলাকায় স্থাপতি বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করা হয়। এসময় এক মিনিট দাঁড়িয়ে থেকে বঙ্গবন্ধুর স্মরণে নিরবতা পালন করে সর্বস্তরের মানুষ। পরে তাঁর নানা স্মৃতি নিয়ে আলোচনা করেন জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী, পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির ও মুক্তিযোদ্ধারা।


    এরআগে সকাল ৯ টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিকে পুস্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী, পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমানসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে সেখানে বঙ্গবন্ধুর জীবনের নানা কর্মকান্ড নিয়ে আলোচনা করেন জেলা প্রশাসক জোহর আলী। এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে দিনব্যাপী জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।


    প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ, ২০২০

    Post Top Ad