Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    শিঘ্রই কঠোর আন্দোলনের নামতে চায় বিএনপি



    দুই বছরের অধিক সময় ধরে কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ দলের প্রধানের মুক্তির জন্য আন্দোলন ছাড়া বিকল্প পথ দেখছে না বিএনপি। তাই শিঘ্রই কঠোর আন্দোলনের নামতে চায় বিএনপি।

    শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে অনেকদিন পর পুলিশের বাধা-ব্যারিকেড উপেক্ষা করে সমাবেশ করেছে বিএনপি। সমাবেশ থেকে দলের নীতিনির্ধারকরা রাজপথে কঠোর আন্দোলনের বার্তা দিয়েছেন। শীর্ষ নেতাদের সবার মুখেই গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তিতে কঠোর আন্দোলনের ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

    ব্যারিকেড-বাধা দিয়ে আন্দোলন থামানো যাবে না বলে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন,  ১৬ কোটি মানুষের নয়নের মনি খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আমাদের ঘোষিত কর্মসূচি ছিলো বিক্ষোভ মিছিল। এতে পুলিশ বাধা দিয়েছে, নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করেছে, কার্যালয়ের সামনে ব্যারিকেড় দিয়ে বাধা দিয়েছো।

    তিনি বলেন,  সরকার মনে করেছে এভাবে দমন নিপীড়ন বাধা দিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে বাধাগ্রস্ত করবে। জনগণের যে প্রাণের দাবি তাকে বাধাগ্রস্ত করবে। কিন্তু তারা ভুলে গেছে এভাবে দমন নিপিড়ন করে কখনও ক্ষমতায় থাকা যায় না। জনগণের ন্যায্য দাবিকে কখনও দমন নিপীড়ন করে দমন করা যায় না।

    মির্জা ফখরুল বলেন,  বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনতা অর্জন করেছে সংগ্রামের মধ্য দিয়ে। এটা ফেব্রুয়ারি মাস, ১৯৫২ সালে এদেশের মানুষ মায়ের ভাষার জন্য নিজের বুকের তাজা রক্ত দিয়ে দাবি আদায় করেছে।

    তিনি বলেন,  বেগম খালেদা জিয়া এ দেশের গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করেছেন, তাকেও ২ বছর ৭ দিন যাবত কারাগারে আটকে রেখেছে। তিনি অত্যন্ত অসুস্থ, আমরা তাঁর মুক্তির মাধ্যমে সুচিকিৎসার দাবি জানিয়েছি। কিন্তু সরকার কোনো সহযোগিতা করেনি, আমরা আবারও বলছি বেগম খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ তাকে মুক্তি দিন।

    gifs website


    প্রকাশিত: শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

    Post Top Ad