• সর্বশেষ আপডেট

    বরগুনায় মাদক ব্যবসায়ির হামলায় পুলিশ সদস্য আহত, একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

     


    মোঃ শাকিল আহমেদ, বরগুনাঃ রগুনা জেলার পাথরঘাটায়, মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনার সময় গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য সহ ৩ জনকে কুপিয়ে আহত করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। মুন্সিরহাট এলাকার সৈকত ও আব্দুর রবসহ স্থানীয় কয়েকজন বখাটে এ হামলার ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত বলে জানা গেছে।

    শনিবার (১৮ মার্চ) বিকেল ৩ টার দিকে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী ইউনিয়নের মুন্সিরহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

    ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় থম থমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।  আহতরা হলেন, বরগুনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য মো. প্রিন্স (৩০), ডিবি সোর্স রিপন ও সাগর। এদের মধ্যে রিপনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

    বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ শাহ আলম হাওলাদার। জানা গেছে, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সৈকতকে ধরতে বরগুনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ পাথরঘাটা উপজেলার মুন্সিরহাট বাজারে জাকারিয়ার চায়ের দোকানের আসে পাশে অবস্থান নেয়। এ সময় সৈকত ওই দোকানে বসে মাদক বেচাকেনা করছিল। 

    তখন দুজন গোয়েন্দা পুলিশ সৈকতকে জাপটে ধরলে আত্মরক্ষার জন্য পকেট থেকে ছুরি বের করেন গোয়েন্দা পুলিশ সদস্যদের উপর এলোপাতাড়িভাবে আঘাত করে থাকে। 

    স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সৈকতের নেতৃত্বে কিছু কিশোর গ্যাং মাদক ব্যবসায়ের সাথে সরাসরি জড়িত। এদের বিরুদ্ধে পাথরঘাটা থানায়, নানা ধরনের  অভিযোগ রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, সৈকতের ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেহ মুখ খুলতে চায়না।

    পাথরঘাটা থানার ওসি মো. শাহ আলম জানান, পাথরঘাটার মুন্সিরহাট এলাকার জাকারিয়ার চায়ের দোকানে আসামি আছে কিনা যাচাই করতে গেলে তারা গোয়েন্দা পুলিশের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ এর জন্য চায়ের দোকানিকে আটক করা হয়েছে। 

    প্রকাশিত শনিবার ১৮ মার্চ ২০২৩