Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    খালেদাজিয়া প্রথম নারী রাজাকারঃ মেয়র রেজাউল করিম

     

    চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বীর মুক্তিযোদ্ধা এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, ‘খালেদা জিয়া দেশের প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা নন বরং দেশের প্রথম নারী রাজাকার’।

     শুক্রবার (১ এপ্রিল) বিকাল ৪টায় নগরের পুরাতন রেল স্টেশন চত্বরে যুবলীগ নেতা দেবাশীষ পাল দেবুর উদ্যোগে বিএনপির ইতিহাস বিকৃতির প্রতিবাদে সমাবেশ ও রমজান উপলক্ষ্যে দুস্থদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

    চসিক মেয়র বলেন, যখন পাক সেনারা এদেশের লক্ষ লক্ষ মা-বোনদের অমানবিক নির্যাতন করছে, তখন কী জাদুবলে খালেদার স্বামী মুক্তিযুদ্ধে যোগ দেওয়া স্বত্ত্বেও খালেদা নয় মাস ছেলেদের নিয়ে ক্যান্টনমেন্টে চিকেন রোস্ট দিয়ে লাঞ্চ ডিনার সেরেছে, জাতির এই প্রশ্নের জবাব ফখরুল সাহেবদের দেওয়া উচিত। ক্ষমতায় যাওয়ার রাজনীতি না করে বিএনপির উচিত যুবলীগের মানবিক কার্যক্রমের মতো মানুষের জন্য রাজনীতি করা।তাহলেই আর ইতিহাস বিকৃতি করা বা বিদেশিদের কাছে ধরনা দেওয়ার দরকার হবে না।

     সাবেক ছাত্রনেতা জাকের আহমেদ খোকনের এর সভাপতিত্বে ও মহানগর যুবলীগ নেতা আনিফুর রহমান লিটুর সঞ্চালনায় সমাবেশে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য দেবাশীষ পাল দেবু বলেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাকবাহিনীর টর্চার সেলে আমাদের বাঙালি মা-বোনদের নিয়মিত ধর্ষণ করা হতো গর্ভধারণ না করা পর্যন্ত।বিবস্ত্র করে রাখা হতো যাতে পালাতে না পারে। চুল কেটে রাখা হতো যাতে আত্মহত্যা করতে না পারে।আর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের নারী হলে নির্যাতনের বর্ণনা মানব ইতিহাসে লজ্জাজনক ঘটনা। 

    অথচ একজন সেক্টর কমান্ডার এর স্ত্রীকে ওরা কিছুই করলো না, আদর করে রাখলো- জাতি এই রহস্য জানতে চায়। আসলে খালেদা জিয়া তার স্বামীর মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধাদের খবরাখবর পাকিস্তানীদের জানিয়ে দিতো। তাই খালেদা জিয়া প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা নয় বরং নারী রাজাকার’।  
    সমাবেশে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বন্দর সিবিএ এর সাধারণ সম্পাদক নায়েবুল ইসলাম ফটিক, নুরনবী পারভেজ, রণজিৎ শীল, জামিল আহমেদ মিলন, মাহাবুবুল   সিদ্দিক, ইমতিয়াজ আহমেদ বাবলা, ইকবাল হোসেন, রাশেদ চৌধুরী, জাহেদ হোসেন খোকন, সালাউদ্দিন বাবর, ইমতিয়াজ সুমন, আবদুল আল মামুন, মো. ইসমাইল, যুবায়ের হোসেন অভি, সাজিবুল ইসলাম সজীব, এমরান হোসাইন, হোসেন আহমেদ মিলন, কাজী আরিফ, সরওয়ার, নুরুল ইসলাম রাসেল, ফরহাদ আবদুল্লাহ, মাহামুদুর রহমান বাপ্পি, আবু নাসের জুয়েল, মারুফ ইসলাম, আকবর জুয়েল, আবিদ হাসান, মোশাররফ হোসেন শিপলু, নুরুল ইসলাম রিয়াদ, মঈনুদ্দিন মিয়াজি, মনিরুল হক মনির, রমজান আলী, অর্জুন দাস, হৃদয় দাশ, অপু দাশ, অপু সরকার, তৌহিদুল ইসলাম, রানা মোতালেব প্রমুখ।

    প্রতিবাদ সমাবেশের পর যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এর নির্দেশনায় ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাসান খান নিখিল এর তত্ত্বাবধানে ‘মানবিক যুবলীগ’ কার্যক্রম এর আওতায় রমজান মাসব্যাপী দুস্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়।
    প্রকাশিত: রবিবার ০৩ এপ্রিল ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad