Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    উচ্চ শব্দে গান বাজালে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা, চেয়ারম্যানের হুঁশিয়ারি

     

    বিয়েসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানে উচ্চ শব্দে গান বাজানোর বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছেন লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ। নির্দেশনা না মানলে অভিযোগের ভিত্তিতে ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

    চেয়ারম্যানের এই সতর্কবার্তা ফেসবুকে শেয়ার করেছেন হাফেজ মনিরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি। এরপরই বিষয়টি ভাইরাল হয়েছে। তবে চেয়ারম্যান খালেদ সাইফুল্লাহ বলছেন, তিনি ওই লোককে চেনেন না। ওই লোক তাঁর সতর্কবার্তাকে ভিন্নরূপে প্রচার করছেন। ওই ফেসবুক ব্যবহারকারীর বিরুদ্ধে থানায় জিডি করবেন বলেও জানান তিনি। 

    এভাবে সতর্কতা জারির কোনো এখতিয়ার আছে কি না, জানতে চাইলে চেয়ারম্যান খালেদ সাইফুল্লাহ বলেন, ‘রাতে উচ্চ শব্দে গানবাজনা হলে মানুষ ঘুমাতে পারে না। এ জন্য রাতে গানবাজনা না করার জন্য সতর্ক করা হয়েছে। মানুষ অভিযোগ দিলে জরিমানা করা হবে। 

    চেয়ারম্যান হিসেবে আমার ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা করার বিধান আছে। আমার ফেসবুক আইডি নেই। কে বা কারা আমার নাম দিয়ে এটি ফেসবুকে চালাচ্ছে। আমি এর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেব।’ নারীদের বাইরে বোরকা পরারও নির্দেশ দিয়েছেন চেয়ারম্যান। 

    এমন খবর ফেসবুকে পাওয়া যাচ্ছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান খালেদ সাইফুল্লাহ বলেন, ‘একজন আলেম হিসেবে মা-বোন ও স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসাছাত্রীদের পর্দার জন্য বোরকা পরে বাইরে বের হওয়ার পরামর্শ দিয়েছি। স্কুলে মোবাইল নিয়ে গেলে পড়ালেখায় ব্যাঘাত ঘটবে। এতে স্কুলে যেন শিক্ষার্থীরা মোবাইল ফোন নিতে না পারে, সে জন্য অভিভাবকদের সতর্ক করার জন্য ওয়াজ-মাহফিলে আমি কথা বলেছি। আমার কথাগুলো কোনো আইন নয়, সতর্কবার্তা ও পরামর্শ। রাষ্ট্রের আইনের বিরুদ্ধে আমি যেতে পারি না।


     আমি বলেছি এক রকম, লোকজন প্রচার করছে অন্য রকম।এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমলনগর থানার ওসি মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, ‘ঘটনাটি আমি শুনেছি। চেয়ারম্যানের সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনি জানিয়েছেন, ফেক আইডি থেকে এসব অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তিনি লিখিত অভিযোগ দেবেন বলেও জানিয়েছেন।’ 

    ফেসবুকে হাফেজ মনিরুল ইসলামের দেওয়া স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো—‘আলহামদুলিল্লাহ, শুরু হল ইসলামী শাসন ব্যবস্থা। কাদিরা ইউনিয়নের বিয়ের অনুষ্ঠানে কোনো গানবাজনা চলবে না। যদি চলে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। বাজারে কোনো গানের আওয়াজ যেন না শুনি। তোমার মন চাইলে এয়ার ফোন দিয়ে শোন, আরেকজনকে শুনাইও না। যারা বক্স ভাড়া দাও, মনে রেখ এমন বাজেয়াপ্ত হবে কোনোদিন ফিরে পাবে না।’ 

     ‘কোনো অভিভাবক বোরকা ছাড়া মেয়েদের স্কুলে পাঠাবেন না। যারা পাঠাবেন তাদের তালিকা করব। কী ব্যবস্থা নেই, সেটা পরে দেখবেন। স্কুলে কোনো ছাত্র-ছাত্রী মোবাইল নিতে পারবে না। মোবাইল বাড়িতে চালাবে। অভিভাবক ও স্কুল কর্তৃপক্ষ এটা খেয়াল রাখবেন।


    প্রকাশিত: মঙ্গলবার ১৫ মার্চ ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad