Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    রিজার্ভ ও মাথাপিছু আয় নিয়ে সরকার মিথ্যাচার করছে: মির্জা ফখরুল

     

    দেশে বৈদেশিক মুদ্রার মজুত ও মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির বিষয়ে সরকার জনগণকে মিথ্যা পরিসংখ্যান দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের এক অনুষ্ঠানে বিএনপির মহাসচিব এই অভিযোগ করেন। গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে কৃষক দলের সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচির উদ্বোধন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠান হয়। এতে লন্ডন থেকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।ফখরুল বলেন, ‘আজকে যারা দেশ শাসন করছে তারা (আওয়ামী লীগ সরকার) পুরো ফেক, প্রতারণা। তারা রিজার্ভের ৪৬ বিলিয়ন ডলারের কথা বলছে। আইএমএফ বলছে, আসলে এটা ফিফটিন পারসেন্ট বাড়িয়ে বলা হয়েছে। এটা একটা ভুয়া সংখ্যা দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ তার চেয়ে প্রায় ৭ বিলিয়ন ডলার কম। এটা গেল পরীক্ষিত একটা ব্যাপার।’তিনি যোগ করেন, ‘তারা মাথাপিছু আয় বাড়ার কথা বলছে। তাই যদি হবে আমার শফিউদ্দিন ভাই (কৃষক), তিনি আত্মহত্যা করলেন কেন? আজকে তিনি সেচের ব্যবস্থা পাননি। এভাবে আপনি যদি লক্ষ্য করে দেখেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে সরকার, যারা আজকে জোর করে ক্ষমতায় এসছে, তারা রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে বন্দুক-পিস্তল নিয়ে জোর করে মানুষের অধিকারকে কেড়ে নিচ্ছে, মিথ্যাচার করছে।’মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তারা (সরকার) কথায় কথায় উৎপাদনের কথা বলছে, উন্নয়নের কথা বলছে। উন্নয়নের দাপটে বাংলাদেশে সবকিছু তারা যেন  সোনা দিয়ে মুড়িয়ে দিচ্ছে। অথচ গতকালই আমরা দেখেছি যে, বাংলাদেশকে এখনও ৬৭ লাখ মেট্রিক টন খাদ্য আমদানি করতে হচ্ছে। যেটা প্রমাণ করে তারা যে সব দাবি করে যে, তারা খাদ্য শষ্যে স্বয়ং-সম্পূর্ণতা লাভ করেছে— এটা সম্পূর্ণ একটা ভাওতাবাজি ছাড়া আর কিছু নয়। এর আগে মাঠ পর্যায়ের তিন জন কৃষক জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের সদস্য ফরম পুরণ করে বিএনপি মহাসচিবের হাত থেকে কৃষক দলের সদস্যপদ গ্রহণ করেন।
    সরকারের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘কৃষক ভাইদেরকে সরকার চরম বিপাকের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। আপনাদের মনে আছে যে, তারা (সরকার) বলেছিল যে, ‘আমরা ১০ টাকা কেজি চাল খাওয়াববো’। তারা কি খাইয়েছে? এখন কত? ৬০/৭০ টাকা। কৃষক ভাইদের বলেছিল যে, ‘আমরা বিনা পয়সায় সার দেবো।’ বিনা পয়সায় কি সার দিয়েছে? এখন তিন/চার গুণ সারের দাম।”
    ফখরুল বলেন, ‘ঘরে ঘরে চাকুরি দেবে তারা বলেছিল। সেই চাকরি তো সাধারণ মানুষ পায়ই না। যারা চাকুরি পায়, তারা  ২০/২৫ টাকা লাখ পর্যন্ত ঘুষ দিয়ে চাকরি পায়।’
    কৃষক দলের সভাপতি হাসান জাফির তুহিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুলের পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত এই অনুষ্ঠানে কৃষক দলের হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, গৌতম চক্রবর্তী, মোশাররফ হোসেন, ওমর ফারুক শাফিন, ওবায়দুর রহমান টিপু প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।


    প্রকাশিত: বুধবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad