Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ছাত্রদের সব দাবি মেনে নিয়েছে রাইদা

      

    ঢাকা: ইম্পেরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নিয়েছেন রাইদা পরিবহনের কর্মকর্তারা। মাসুদ নামে যে চেকার শিক্ষার্থী নাবিলের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছিল, তাকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

    সোমবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম

    তিনি বলেন, ঘটনার পরপরই আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ছাত্রদের আশ্বস্ত করি তোমাদের দাবি-দাওয়া পরিবহনের কর্তৃপক্ষ মেনে নেবে। পরে নাবিলসহ ২০ থেকে ২৫ জন ছাত্র ও রাইদা পরিবহনের  তিন কর্মকর্তাকে নিয়ে থানায় বসে আলোচনায় করা হয়।

    একপর্যায়ে ছাত্ররা দাবি করেন, রাইদা পরিবহনে ৯টি সিট নারীদের জন্য বরাদ্দ থাকবে। সব শিক্ষার্থীর কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নিতে হবে।

    এছাড়া তাদের আরেকটা দাবি ছিল ভাড়া আদায়ের জন্য শিক্ষিত লোক নিযুক্ত করতে হবে। যেন তারা মানুষের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করে।

    তিনি আরও জানান, ছাত্রদের সব দাবি রাইদা পরিবহন কর্তৃপক্ষ মেনে নিয়েছেন এবং অভিযুক্ত চেকার মাসুদকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

    এমন সিদ্ধান্তের পর বিকেল ৫টার দিকে রাইদা পরিবহন পুনরায় চলাচল শুরু করে। আর ছাত্ররা  তাদের সব দাবি মেনে নেওয়ায় তাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।


    প্রকাশিত: সোমবার  ১৫ নভেম্বর ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad