Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে কোচিং শিক্ষক আটক





    রংপুররের পীরগাছায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেস্টার অভিযোগে কোচিং শিক্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

    পুলিশ ১৫১ ধারায় আটক দেখিয়ে আদালতে পাঠালে মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) অভিযুক্ত শিক্ষক বিপুল চন্দ্রকে (৪৫) কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

    এদিকে অভিযোগ উঠেছে, প্রভাবশালীদের চাপে ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার থেকে কোনো মামলা করা হয়নি।

    অভিযুক্ত বিপুল চন্দ্র ওই উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নের পূর্ব ব্রাহ্মণীকুণ্ডা গ্রামের পুন্ন চন্দ্রের ছেলে।  
    জানা গেছে, পঞ্চম শ্রেণির ওই ছাত্রী ইউনিয়নে একটি কোচিং সেন্টারে ক্লাস করতো। প্রতিদিনের মতো সোমবার (১৬ আগস্ট) দুপুরেও সে ক্লাসের জন্য যায়। সে সময় কোচিংয়ে অন্য শিক্ষার্থীরা না থাকার সুযোগে মেয়েটিকে বিপুল চন্দ্র ধর্ষণচেষ্টা চালান। মেয়েটি তখন চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এসে শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে। আর অভিযুক্তকে ধরে ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) তাকে নিয়ে আটকে রাখে এলাকাবাসী।  

    সেদিনই রাত ১০টার দিকে প্রভাবশালীরা বিষয়টি স্থানীয়ভাবে ইউনিয়ন পরিষদে সমাধানের জন্য বসলে পীরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামসুল আরেফীন পুলিশ পাঠিয়ে তা পণ্ড করে দেন। পরে বিপুল চন্দ্রকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।  

    পীরগাছা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে কোচিং শিক্ষক বিপুল চন্দ্রকে আটক করা হয়েছে। আটকের পর স্বাভাবিক নিয়মে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে ওই ছাত্রীর পরিবার থেকে এখন পর্যন্ত কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি।


    প্রকাশিত: : মঙ্গলবার ১৭ আগস্ট, ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad