Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    হাসপাতাল উধাওয়ের খবর মিথ্যা: স্বাস্থ্য ডিজি


    করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় বসুন্ধরায় প্রায় ৩১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হাসপাতাল উধাও হয়ে যাওয়ার খবরটি মিথ্যা বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম।

    রোববার (১১ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশন এটি নিয়ে মিথ্যা ও মনগড়া রিপোর্ট তৈরি করেছে।

    স্বাস্থ্য ডিজি বলেন, বসুন্ধরা কোভিড হাসপাতাল ছিল একটি অস্থায়ী হাসপাতাল। হাসপাতালগুলোতে কোভিড রোগীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালের সঙ্গে এই রোগের চিকিৎসার জন্য স্বাক্ষরিত চুক্তি বাতিল করে সরকার। এই হিসাবে তারা হাসপাতাল তুলে নিতেই পারে।

    উল্লেখ্য, গত বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর এই হাসপাতালটি বন্ধ ঘোষণা করার নির্দেশনা দেয় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ। কোভিড-১৯ সংক্রমিতদের চিকিৎসার বিষয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের সঙ্গে করা সমঝোতা স্মারকও বাতিলের কথা বলা হয় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের চিঠিতে।

    দেশের হাসপাতালগুলোতে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালের সঙ্গে এই রোগের চিকিৎসার জন্য স্বাক্ষরিত চুক্তি বাতিল করছে সরকার। তারই ধারাবাহিকতায় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব ড. বিলকিস বেগম স্বাক্ষরিত ‘জরুরি’ এক চিঠিতে বসুন্ধরার সঙ্গে চুক্তি বাতিলের কথা বলা হয়।

    করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য গত বছররের ১৭ মে আন্তর্জাতিক কনফেনশন সেন্টার বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) স্থাপিত ২০১৩ শয্যার হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এটি বাংলাদেশে করোনা চিকিৎসায় সবচেয়ে বড় হাসপাতাল ছিল।

    প্রকাশিত: রবিবার ১১ এপ্রিল, ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad